কারো সাথে যুদ্ধ না চাইলেও আক্রান্ত হলে মোকাবিলায় প্রস্তুত বাংলাদেশ; নোয়াখালীর স্বর্ণদ্বীপে সেনা মহড়ায় বললেন প্রধানমন্ত্রী

কারো সাথে যুদ্ধ না চাইলেও আক্রান্ত হলে মোকাবিলায় প্রস্তুত বাংলাদেশ; নোয়াখালীর স্বর্ণদ্বীপে সেনা মহড়ায় বললেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশ কারো সাথে যুদ্ধে যেতে চায় না, তবে আক্রান্ত হলে তা মোকাবিলায় সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত থাকতে হবে। বলেন, সেনাবাহিনীকে আধুনিক ও চৌকস বাহিনীতে পরিণত করতে তাঁর সরকার বদ্ধপরিকর। নোয়াখালীর স্বর্ণদ্বীপে ১১ পদাতিক ডিভিশনের ৯৩ সাঁজোয়া ব্রিগেডের আক্রমণ অনুশীলন ও বিশেষ দরবারে এসব মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

উপকূল থেকে অনেকটা দূরে হওয়ার কারণে নোয়াখালীর স্বর্ণদ্বীপে ঢুকে পড়ে শত্রুপক্ষ। তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে সেনাবাহিনী শুরু করে অপারেশন মাতৃভুমি। শুরু হয় প্রযুক্তিগত ও গোয়েন্দা তৎপরতা।

শত্রুর অবস্থান জানার পর সেখানে ট্যাংক ও আর্মার্ড ভেহিকেলের সাহায্যে হামলা চালানো হয়। সঙ্গে হেলিকপ্টার আর বিমান।
আক্রমণের পাশাপাশি হতাহতদের নিরাপদে সরিয়ে নিতে তৎপর হেলিকপ্টারগুলো। সেনাবাহিনী, নতুন নতুন যুদ্ধাস্ত্র ব্যবহারের পর শুরু করে বিমান হামলা।
শত্রু পক্ষকে হটিয়ে পুন:প্রতিষ্ঠিত হয় দেশের সীমানা। নোয়াখালীর স্বর্ণদ্বীপে ১১ পদাতিক ডিভিশনের ৯৩ সাঁজোয়া ব্রিগেডের আক্রমণ অনুশীলন মঞ্চ থেকে দেখে আশ্বস্ত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

পরে, দরবারে যোগ দিয়ে সেনাসদস্যের দিকনির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী।
এরআগে, স্বর্ণদ্বীপে এসে সেনাবাহিনী নির্মিত সাইক্লোন সেন্টার, গরুর খামার ও নারকেল বাগান ঘুরে দেখেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven + 11 =

আরও

১৭ ফেব্রুয়ারি, শুক্রবার ২০১৭

বিকেল ৫:০০ : সংবাদ দেশজুড়ে বিকেল ৫:২৫ :