বেপরোয়া গতি ও পাল্লা দিয়ে গাড়ি চালানোর কারণে সড়ক-মহাসড়কে বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল

বেপরোয়া গতি ও পাল্লা দিয়ে গাড়ি চালানোর কারণে সড়ক-মহাসড়কে বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল

চালকদের বেপরোয়া গতি ও পাল্লা দিয়ে গাড়ি চালানোর কারণে সড়ক-মহাসড়কে বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল। বছরে অকালে ঝরছে প্রায় আড়াই হাজার তাজা প্রাণ। যাত্রী কল্যাণ সমিতির দাবি, সড়ক দূর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা আট হাজারের বেশি। পরিস্থিতি এতটাই ভয়াবহ যে, মাত্র দু’দিনেই বিভিন্ন সড়কে প্রাণ গেছে ৫০ জনের। সড়ক দূর্ঘটনা গবেষণা ইনস্টিটিউটের বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, দেশের ৯০ শতাংশ চালকের প্রাতিষ্ঠানিক প্রশিক্ষণ না থাকায় দূর্ঘটনায় হতাহতের সংখ্যা বাড়ছে।

রবিবার নরসিংদীর দড়িকান্দি এলাকায় বাস ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখী সংর্ঘষ কেড়ে নেয় ১৩ জনের প্রাণ। ৯ জেলায় ওইদিন নিহত হন ২৫ জন। এর আগের দিনও দেশের বিভিন্ন জায়গায় দূর্ঘটনায় প্রাণ যায় আরো ২৫ জনের।

সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ-বিআরটিএ’র পরিসংখ্যান বলছে, ২০১৫ সালে সড়কে ঝরেছে ২ হাজার চারশ’ লোকের প্রাণ। বছর শেষ হলেও ২০১৬ সালের পূর্ণাঙ্গ কোনো হিসাব নেই প্রতিষ্ঠানটির কাছে। তবে, যাত্রী কল্যাণ সমিতির দাবি, সড়কে প্রাণহানির সংখ্যা আট হাজারের বেশি।

বুয়েটের সড়ক দূর্ঘটনা গবেষণা ইনস্টিটিউটের গবেষণা বলছে, ৫৩ শতাংশ সড়ক দূর্ঘটনার কারণ অতিরিক্ত গতিতে গাড়ি চালানো। ৩৭ শতাংশ সড়ক দূর্ঘটনার পেছনের কারণ চালকদের বেপরোয়া মনোভাব এবং অপ্রয়োজনীয় ওভারটেকিং। শুধু তাই নয়, দূর্ঘটনা কমাতে মহাসড়কে গাড়ির গতি নিয়ন্ত্রণ ক্যামেরা ও তল্লাশিচৌকি বসানোর প্রস্তাবনা তৈরি করেছে বুয়েট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one + 5 =

আরও

সিলেটের জঙ্গী আস্তানার কাছে পুলিশ সদস্যসহ নিহত ৩

সিলেটের শিববাড়িতে জঙ্গী আস্তানার কাছে দুই দফা গ্রেনেড