ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স বিধ্বস্তের প্রতিবেদন প্রকাশ

প্রাণঘাতী দুর্ঘটনার দশমাস পর কাঠমান্ডু বিমান বন্দরে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স বিধ্বস্তের প্রতিবেদন প্রকাশ করলো ‘নেপাল দুর্ঘটনা তদন্ত কমিটি’। এ প্রতিবেদনে বলা হয়, বিমানটির চালক মানসিকভাবে চাপে ছিলেন বলেই ঐ দুর্ঘটনা ঘটেছে। বিমানের ককপিটের রেকর্ড ও একাধিক প্রত্যক্ষদর্শীদের সাক্ষ্য পর্যালোচনার পর রবিবার ‘নেপাল দুর্ঘটনা তদন্ত কমিটি’ এ প্রতিবেদন প্রকাশ করে। তদন্ত কমিটি জানায়, যাত্রার সময় সহকর্মী এক নারী পাইলটকে না দেয়ায় তিনি অপমানিত হন। বিমানের ককপিটে ধুমপান এবং সহকর্মীদের সঙ্গে দীর্ঘসময় ধরে গল্প করছিলেন বলে জানায় প্রতিবেদনটি।

অমনোযোগিতার কারনে সঠিক রানওয়ে না দেখায় বিমানটি বিধ্বস্ত হয়ে চার ক্রু-সহ ৭১যাত্রীর মধ্যে ৫১জনেরই মৃত্যু হয় বলে জানানো হয় প্রতিবেদনটিতে। গেলো বছর মার্চে ঢাকা থেকে রওনা হয়ে কাঠমাণ্ডুর ত্রিভূবন বিমানবন্দরে অবতরণের ঠিক আগমুহূর্তে বিমানটি রানওয়ের পাশে বিধ্বস্ত হয়। এদিকে, রিপোর্ট প্রকাশের পর এক প্রতিক্রিয়ায় ইউএস বাংলা অভিযোগ করেছে, নিজেদের দোষদামাচাপা দিতেই নেপাল বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। অন্যদিকে, বেসমরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ বলেছে, পাইলটের ভুল থাকতে পারে কিন্তু নেপাল বিমানবন্দরের কন্ট্রোলরুম তাদের দায় এড়াতে পারেনা।

You may also like

১৭ ফেব্রুয়ারি, রবিবার ২০১৯

বেলা ১২:০৫ : বাংলা সিনেমা বিকেল ৫:০০ :