স্বস্তির ঈদ যাত্রার মধ্যেই সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুসহ নিহত ১৮

মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় সিরাজগঞ্জ, সুনামগঞ্জ, ময়মনসিংহ ও নাটোরে শিশু সহ ১৮ জন নিহত হয়েছে। এরমধ্যে সিরাজগঞ্জেই নয়জন, সুনামগঞ্জে সাতজন, নাটোর ও ময়মনসিংহ ১জন করে নিহত হয়। আহত হয়েছে অন্তত ২০ জন। রবিবার বেলা সাড়ে ১২টায় সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ার বোয়ালিয়া বাজারের শোলাগাড়ি ব্রিজের কাছে বাস চাপায় লেগুনার আট যাত্রী নিহত হয়। আহত হয় ১৫ জন।

তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পর আরো একজনের মৃত্যু হয়। দুর্ঘটনার কারনে বগুড়া-নগরবাড়ী মহাসড়কে প্রায় এক ঘন্টা যানচলাচল বন্ধ থাকে।পুলিশ জানায়, পাবনা এক্সপ্রেসের একটি বাস ঢাকা থেকে যাওয়ার পথে সিরাজগঞ্জে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি লেগুনাকে চাপা দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে হতাহতদের উদ্ধার করে। দুর্ঘটনার পর বাসের চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়। এদিকে, সুনামগঞ্জ-দিরাই সড়কের গণিগঞ্জ এলাকায় বাসের ধাক্কায় লেগুনা চালকসহ ছয় যাত্রী নিহত হয়েছে। গুরুতর আহত হয়েছে আরও পাঁচজন।

রবিবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে এই দুর্ঘটনা হয়। ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় লাশ উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।পুলিশ জানায়, দিরাই থেকে ঢাকাগামী লিমন পরিবহনের একটি বাস গণিগঞ্জে বিপরীত দিক থেকে আসা লেগুনাকে ধাক্কা দেয়। গতি বেশি থাকায় গাড়ি দু’টি রাস্তার দু’পাশে উল্টে পড়ে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। অন্যদিকে, নাটোরের বড়াইগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় এক শিশু নিহত হয়েছে।

You may also like

মুক্তিযুদ্ধের চেতনা-দক্ষতা বিবেচনায় সেনা সদস্যদের পদোন্নতি : প্রধানমন্ত্রী

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস, নেতৃত্ব, পেশাগত দক্ষতা, শৃঙ্খলা ও