নৌকাডুবিতে নিখোঁজের আটদিন পর দুই শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার

রাজশাহীর নবগঙ্গায় পদ্মায় নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজের আটদিন পর বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী ও স্কুলছাত্রের গলিত লাশ উদ্ধার করেছেন স্থানীয়রা। আজ ভোরে পদ্মা নদীর দুর্ঘটনা কবলিত স্থানে তাদের গলিত মরদেহ ভেসে উঠলে স্থানীয়রা তা উদ্ধার করে পুলিশে খবর দেয়। নিহতদের মামা মামুন ও চাচা রেজাউল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। গত ২৫ সেপ্টেম্বর ১৩ জন যাত্রী নিয়ে একটি ইঞ্জিনচালিত ছোট নৌকা তীব্র স্রোতের তোড়ে ডুবে যায়। অন্য নৌকার সহযোগিতায় নৌকার ১১ জনযাত্রীকে জীবিত উদ্ধার করা গেলেও নিখোঁজ থাকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী সুচনা ও তার খালাতো ভাই রিমন।

দুর্ঘটনার পর নিখোঁজ দুই শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধারে টানা কয়েকদিন উদ্ধার কাজ চালায় ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দল। নিহত সাদিয়া ইসলাম সূচনা ঢাকার আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ -এআইইউবি এর বিবিএ তৃতীয় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী এবং তার খালাতো ভাই রিমন অষ্টম শ্রেণির ছাত্র। সূচনার বাড়ী নওগাঁ ও রিমনের বাড়ি পবা উপজেলার দামকুড়া থানার খোলাবনা গ্রামে। সূচনা ঢাকা থেকে রাজশাহীতে বেড়াতে এসে নৌকাডুবির শিকার হয়। দুর্ঘটনার পরের দিন নৌ পুলিশ বাদী হয়ে নৌকার মাঝি ও দুই মালিকের বিরুদ্ধে দামকুড়া থানায় মামলা দায়ের করে।

You may also like

গোল্ডেন মনিরের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি এলাকাবাসির

গোল্ডেন মনিরের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও তার বাবার নামে