কাল থেকে মসজিদে নামাজ ও তারাবি পড়া যাবে

শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা সহ বেশ কিছু শর্ত সাপেক্ষে কাল বৃহস্পতিবার যোহর থেকে মসজিদে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ এবং তারাবী আদায় করতে পারবেন সুস্থ মুসল্লীরা। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ জানিয়েছেন, যেসব মসজিদে সরকারের দেয়া স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করা হবে সেখানে জামাত বন্ধ করে দেয়া হবে।

ধর্ম মন্ত্রনালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে শর্তে দেয়া হয়,
* মসজিদে কার্পেট বিছানো যাবে না। * পাঁচ ওয়াক্তের নামাজের আগে সম্পূর্ণ মসজিদ জীবানু নাশক দ্বারা পরিস্কার করতে হবে।
* মসজিদের গেটে সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখতে হবে।
* প্রত্যেক মুসল্লীকে নিজ জায়নামাজ সাথে নিয়ে আসতে হবে।
* মুসল্লীদের মাস্ক পরতে হবে।
* প্রত্যেককে নিজ নিজ বাসায় সুন্নত, নফল আদায় করে মসজিদে আসতে হবে।
* ওযু করার সময় কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে। * কাতারে নামাজে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে তিন ফুট পর পর দাঁড়াতে হবে।
* এক কাতার অন্তর অন্তর কাতার করতে হবে।
* শিশু, বয়োবৃদ্ধ, বা যে কোন অসুস্থ ব্যক্তি এবং অসুস্থদের সেবায় নিয়োজিত ব্যক্তি জামাতে অংশ নিতে পারবেন না।
* মসজিদে সংরক্ষিত জায়নামাজ ও টুপি ব্যবহার করা যাবে না।
* মসজিদে ইফতার ও সেহরির আয়োজন করা যাবে না।
* প্রত্যেক মসজিদে সর্বোচ্চ পাঁচজন নিরাপদ দুরত্ব বজায় রেখে ইতেকাফের জন্য অবস্থান করতে পারবেন ।

খতিব ইমাম এবং মসজিদ পরিচালনা কমিটিকে বিষয়গুলো বাস্তবায়ন নিশ্চিত করতে প্রজ্ঞাপনে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। মসজিদে আবারো জামাত চালুর সরকারি সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন দেশের আলেম সমাজ। এর আগে করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রনে মসজিদের ইমাম, মোয়াজ্জিন খাদেমসহ স্টাফদের বাইরে সাধারন মুসল্লীদের কেউ মসজিদে জামাতে অংশ নিতে পারবে না বলে প্রজ্ঞাপন জারি করেছিল ধর্মমমন্ত্রনালয়। জাহাঙ্গীর আকন্দ, বাংলাভিশন, ঢাকা।

You may also like

ভারতীয় পচা পেঁয়াজে ব্যবসায়িদের মাথায় হাত

ভারতের নিষেধাজ্ঞায় পাঁচদিন বন্ধের পর শনিবার থেকে দেশে