মাগুরায় আওয়ামী লীগ নেতা ও সমর্থকদের গর্ভবতীর ওপর হামলা

মাগুরার মহম্মদপুরে আওয়ামী লীগ নেতা ও তার সমর্থকদের হামলায় মায়ের গর্ভে আঘাত পেয়ে নির্ধারিত সময়ের আগে জন্ম নেয়া শিশুটি চারদিন পর মারা গেছে। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। ভুক্তভোগী মুক্তা পারভিন জানান, উপজেলার মান্দারবাড়িয়া গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা সৈয়দ সিকান্দর আলী ঈদ শুভেচ্ছার ব্যানারের জন্য তাদের কাছ থেকে বাঁশ কেনেন। বাঁশের বাকি তিন হাজার টাকার আনতে তার মা মনজিলা বেগম গত ১৪ জুন সিকান্দারের বাড়িতে যায়। কিন্তু ওইদিন মনজিলাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন সিকান্দার ও তার লোকজন।

এসময় সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা মুক্তা, মাকে রক্ষা করতে গেলে তার ওপরও হামলা চালানো হয়। এতে মুক্তা মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রথমে মোহম্মদপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। এ অবস্থায় গত ২২ জুন অপূর্ণাঙ্গ ও কম ওজনের কন্যা সন্তান প্রসব করে মুক্তা। চিকিৎসক জানান, অপরিণত শিশুটির শ্বাসকষ্টসহ নানা জটিলতা থাকায় তাকে মঙ্গলবার ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। তবে পথেই মারা যায় শিশুটি। পুলিশ জানায়, এ ঘটনায় আসামিদের আটকের চেষ্টা চলছে।

You may also like

ধামরাইয়ে চার শিশুর ধর্ষক আটক

ধামরাইতে চার শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে একজনকে আটক করা