হালনাগাদ হচ্ছে রাজধানীতে রেড জোনের তালিকা

করোনা সংক্রমণ হারের প্রেক্ষিতে রাজধানীতে এরই মধ্যে চিহ্নিত রেড-ইয়োলো-গ্রীন জোনের তালিকা বাস্তবায়ন করা না হলেও তা হাল নাগাদ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এছাড়া রাজধানীর ওয়ারীকে রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত করে মন্ত্রনালয়ে তালিকা পাঠানো হয়েছে বলেও জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। আর ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জানিয়েছেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে সঠিকভাবে চিহ্নিত করে তালিকা দেয়া হলে তারা কার্যকরের ব্যবস্থা নেবেন। স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রনালয়ের যৌথ উদ্যোগে একটি অ্যাপস তৈরী করা হয়েছে যার মাধ্যমে করোনা সংক্রমনের হার বিবেচনা করে ঢাকাসহ সারা বাংলাদেশকে রেড, ইয়েলো ও গ্রীন নামে ভিন্ন ভিন্ন জোনে ভাগ করা হচ্ছে। ঢাকার দুই সিটিতে ৪৫ এলাকাকে রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

এর মধ্যে রাজাবাজারকে পরীক্ষামুলক লক ডাউনের আওতায় আনা হয়। দুই তিন সপ্তাহ পার হয়ে গেলেও অন্য কোন জোনকে লক ডাউনের আওতায় আনা হয় নি। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে তালিকা হাল নাগাদ করা হচ্ছে। পূর্ব রাজাবারের পর ওয়ারীকে রেড জোনের আওতায় আনার ঘোষণা এসেছে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে ।  এদিকে, আশকোনা হজ ক্যাম্প থেকে বনরুপা হাউজিং পর্যন্ত ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের খনন করা খালের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জানিয়েছেন, জোন ভাগ করা বা ম্যাপিং করার দায়িত্ব স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের। কার্যকরের দায়িত্ব সিটি করপোরেশনের। অনুষ্ঠানে এলজিআরডিমন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, ঢাকার সকল খাল সংস্কার করে পর্যায়ক্রমে হাতিরঝিলের মত দৃষ্টি নন্দন করা হবে। আহাম্মেদ সরোয়ার, বাংলাভিশন, ঢাকা।

You may also like

হাওরে ট্রলার ডুবিতে দুই শিশুসহ ১৭ জনের প্রাণহানী

নেত্রকোনায় মদনের রাজালিকান্দা হাওরে ট্রলার ডুবে কমপক্ষে ১৭