মহাগুরু

ধারাবাহিক নাটক ‘মহাগুরু’ বাংলাভিশনে প্রচারিত হচ্ছে প্রতি সপ্তাহে রবি ও সোমবার রাত ৯টা ০৫মিনিটে। রিজওয়ান খান-এর রচনা ও কায়সার আহমেদ-এর পরিচালনায় নাটকটিতে অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম, এটিএম শামসুজ্জামান, শহিদুজ্জামান সেলিম, নিলয় আলমগীর, আনিকা কবির শখ, অহনা, বাঁধন, মেহেরিন নিশা, স্নেহা, দিলারা জামান, সাবেরী আলম, আখম হাসান, জয়রাজ, জুঁই করিম, মুকুল সিরাজ, কাজী উজ্জল, মাসুদ রানা মিঠু, টুটুল চৌধুরী, বিনয় ভদ্র প্রমুখ।

কাহিনী সংক্ষেপ: মহাগুরু এমজি, আসল নাম মহব্বত আলী। পাঁচ বছর আগে এম.এ. পাশ করে বরিশাল থেকে ঢাকায় এসেছিল ভাল একটা চাকুরীর সন্ধানে। কিন্তু টানা তিন বছর শত চেষ্টা করেও চাকুরী পায় নি মহব্বত। মহব্বতের বাবা গ্রামের স্বচ্ছল কৃষক। একমাত্র ছেলেকে নিয়মিত টাকা পাঠান। মহব্বতের মনে অনেক কষ্ট, কারণ বরিশাল থেকে আসার সময় বাবাকে কথা দিয়ে এসেছিল, নিজের পায়ে দাঁড়াবে মহব্বত। ঢাকায় বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষের বিচিত্র পেশা সম্পর্কে অভিজ্ঞতা আছে মহব্বতের। অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে মহব্বত নিজেই বিচিত্র পেশা বেছে নেয়, তা হলো ‘জ্ঞান বিক্রি করা’।

ভাড়া করা দু’রুমের ফ্ল্যাটে বিশাল লাইব্রেরী গড়ে তুলে মহব্বত। গত দুই বছর সে হাজার হাজার বই পড়ে নানান বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করেছে। গত ছয় মাস ধরে সে জ্ঞান বিক্রি করছে। ইতিমধ্যে চৌদ্দজন বেকার যুবক মহব্বতের কাছ থেকে জ্ঞান নিয়ে তা ব্যবহার করে স্বচ্ছল ভাবে জীবন চালাতে পারছে। কেউ চাকরী পেয়েছে, কেউ ব্যবসা করছে, কেউ কেউ ফ্রিল্যান্স পেশা গ্রহণ করেছে। ক’দিন আগে বিচিত্র একটা ঘটনা মহব্বতের জীবন পাল্টে দেয়। সুপার হিরোর ক্ষমতা লাভ করে মহব্বত। রাতারাতি মহাগুরু বনে যায় সে। দুষ্টের দমনে নেমে পরে মহাগুরু। বিভিন্ন ঘটনার মধ্য দিয়ে এগিয়ে যায় নাটকের কাহিনী।

You may also like

‘কান’-এর রেড কার্পেটে রূপকথা তৈরি করলেন ঐশ্বর্যা

৭০তম কান চলচ্চিত্র উৎসবের রেড কার্পেটে ঐশ্বর্যাকে দেখে