বলিউড বাদশাকে বিপদে ফেলে ‘মসকরা’

বলা হয় তিনি ভীষণ স্পোর্টিং। যে কোনও ধরনের ইয়ার্কি খুব সহজ ভাবে নেন। কিন্তু দুবাইয়ে যে ঘটনা ঘটল, তাতে বাদশা বেজায় রেগে গিয়েছেন। মিডিয়া অন্তত তাঁকে কোনও দিন এ ভাবে রিঅ্যাক্ট করতে দেখেনি। ‘অসহিষ্ণুতা’ বিতর্কের সময়ও শাহরুখ যথেষ্ট মাথা ঠান্ডা রেখেছিলেন। কিন্তু, এ বার আর পারলেন না।

দুবাইয়ে একটি শোয়ে অতিথি হিসেবে গিয়েছিলেন শাহরুখ। সেখানে শোয়ের ফরম্যাট অনুযায়ী, সঞ্চালক বিভিন্ন রকমের প্র্যাঙ্ক করে থাকেন অতিথির সঙ্গে। কথা বলতে বলতে সেই স়ঞ্চালক এবং শাহরুখ একটি জায়গায় পৌঁছে যান, যেখানে একটি গর্ত ফাঁদ হিসেবে রাখা ছিল। শাহরুখ এবং সঞ্চালক দু’জনেই সেখানে পড়ে যান। পুরো বালিতে মাখামাখি!

এতেই শেষ নয়, একটি সরীসৃপ জাতীয় প্রাণী সেই সময় তাঁদের দিকে এগিয়ে আসতে থাকে। সেটা দেখে শাহরুখ নাকি আরও রেগে যান। পরে দেখা যায়, ওই শোয়ের আর এক সঞ্চালক অদ্ভুত পোশাক পরে কাণ্ডটি ঘটিয়েছেন।

গোটা বিষয় নিয়ে শাহরুখ বেজায় বিরক্ত হন। বার বার বলতে থাকেন, ‘‘এর জন্য আমাকে অত দূর থেকে এখানে নিয়ে এসেছেন?’’ তিনি যে ও ভাবে রেগে যাবেন, সেটে উপস্থিত কেউই সেটা বুঝতে পারেননি।

আসলে এটি ছিল মিশরীয় গায়ক এবং মডেল রামিজ জালালের পূর্ব পরিকল্পিত একটি ফাঁদ। যা পাতা হয়েছিল বলিউড বাদশাকে বিপদে ফেলে ‘মসকরা’ করার উদ্দেশ্যে। গোটা ঘটনার ভিডিওটি এখন রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ভিডিও-য় দেখা গিয়েছে, ঘটনায় বেজায় চটে যান শাহরুখ খান। রামিজ বহু বার তাঁর হাতে পায়ে ধরে ক্ষমা চাইলেও শান্ত করতে পারেননি বলিউড বাদশাকে। রাগের চোটে কয়েক বার রামিজকে মারতেও তেড়ে যান শাহরুখ।

তবে, সোমবার শাহরুখের ম্যানেজার জানান, গোটা ঘটনাটাই পূর্ব পরিকল্পিত এবং বলিউড বাদশাও এই পরিকল্পনায় সামিল ছিলেন। আবু ধাবির জনপ্রিয় ওই ‘প্র্যাঙ্ক টেলিভিশন শো’-এর সঞ্চালক রামিজ জালালের অনুরোধেই এই শুট করতে রাজি হয়েছিলেন শাহরুখ।

অতএব, বলিউড বাদশার বিপদে পড়া, রেগে যাওয়া, মারমুখী হওয়া— সবটাই পূর্ব পরিকল্পিত। অর্থাৎ, রামিজের শো-এর টিআরপি বাড়ানোর জন্য ব্র্যান্ড এসআরকে-র সাহায্য। সূত্রের খবর, শোয়ের জন্য তিনি ২ কোটি টাকাও পেয়েছেন!

You may also like

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বিএনপি কী বললো তাতে কিছু যায় আসে না- স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন,