পুরুষের বন্ধ্যত্ব বাড়ছে শহরে

সন্তান হচ্ছে না। অতএব সমস্যা রয়েছে মেয়েটিরই। কোনও রকম পরীক্ষানিরীক্ষার আগেই এই সিদ্ধান্তে পৌঁছে যাওয়া হয় অধিকাংশ ক্ষেত্রেই। অথচ অনেকেই জানেন না যে, পুরুষের বন্ধ্যত্ব উল্লেখযোগ্য হারে বাড়ছে প্রতিনিয়ত।

চিকিৎসকদের মতে, এ ক্ষেত্রে আধুনিক জীবনযাত্রার দায় অনেকটাই। চর্বিজাতীয় বা মশলাযুক্ত খাবার, বিভিন্ন নেশা, রাতের শিফটে ডিউটি এবং অতিরিক্ত টেনশন সবচেয়ে বেশি সমস্যা তৈরি করে।

এছাড়াও বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, ডিম্বাণু সুস্থ থাকলেও যদি শুক্রাণুর গুণগতমান ভাল না হয়, তা হলে ভ্রূণ তৈরি হবে না। আধুনিক খাদ্যাভাসে চর্বিজাতীয়, অতিরিক্ত তেলমশলাযুক্ত খাবার বেশি খাওয়া হয়।

এই ধরনের খাদ্যাভাসের জেরে স্থূলতার সমস্যা তৈরি হয়। সঙ্গে থাকে ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপের মতো সমস্যাও। পাশাপাশি অতিরিক্ত মদ্যপান এবং ধূমপানের জেরে পুরুষদের শুক্রাণু তৈরিতে সমস্যা হতে পারে। মদ এবং তামাকজাত পদার্থ সেবন করলে রক্তের স্বাভাবিক চলাচল বাধা পায়।

তার জেরে পর্যাপ্ত শুক্রাণু তৈরি হয় না। মোটরবাইক চালানোও বন্ধ্যত্ব ডেকে আনতে পারে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞদের একাংশ। তাঁদের মতে, ইঞ্জিনের গরম দেহের স্বাভাবিক প্রক্রিয়াগুলির জন্য ক্ষতিকারক। তাই দিনের একটা বড় সময় মোটরবাইক চালালে সুস্থ শুক্রাণু তৈরি না হওয়ার ঝুঁকি থাকে।

You may also like

২০ আগস্ট, রবিবার ২০১৭  

বেলা ১২:০৫ : বাংলা সিনেমা বিকেল ৫:২৫ : পরীক্ষার