সমালোচকরাই আমার জীবনে সবচেয়ে বড় শুভাকাঙ্খী: অমিতাভ বচ্চন

সমালোচনা ও যত্ন। দু’টিই জীবনে সমান্তরাল ভাবে চলা একই পথের পথিক। সমালোচকরাই জীবনের সবচেয়ে বড় শুভাকাঙ্খী। এই বিশ্বাস, বলিউড শাহেনশার। সম্প্রতি অমিতাভ বচ্চন তাঁর অফিশিয়াল ব্লগে লিখেছেন, ‘‘যখন কেউ আপনার সমালোচনা করেন, মনে রাখবেন তিনি আপনার জন্য সবচেয়ে বেশি ভাবেন। এটা সবার উপভোগ করা উচিত। এটা আমার কথা নয়। তবে এই কথাগুলোকে আমি খুব সম্মান করি।’’
৭৪ বছর বয়সে এসে হঠাৎ ‘সমালোচনা’ নিয়ে ভাবতে বসলেন কেন বিগ বি? হঠাৎ করে কেনই বা তাঁর এমন উপলব্ধি? স্বাভাবিক ভাবে এ প্রশ্ন উঠতেই পারে। সে ক্ষেত্রে একটু পিছিয়ে গিয়ে ভাবতে হবে।
অমিতাভ বচ্চন। বলিউড শাহেনশা। এই নামটা প্রায় চার দশক ধরে একই ওজন ধরে রেখেছে। অভিনয় নিয়ে কাটাছেঁড়া, ফ্লপ-হিটের পরিসংখ্যান, প্রেম-পরকীয়ার অভিযোগ, সম্পত্তি, পরিবার— এ ধরনের বহু বিষয়ের ‘গসিপ’-এই নাম জড়িয়েছে অমিতাভের। কিন্তু সমালোচনাকে পাশ কাটিয়ে এগিয়ে গিয়েছেন অমিতাভ।
‘পিঙ্ক’ ছবিতে অমিতাভের পারফরম্যান্স নিয়ে তাঁকে সমালোচনায় বিদ্ধ করেছিলেন সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি মার্কণ্ডেয় কাটজু। ওই বিচারপতি তাঁর ফেসবুক পোস্টে লিখেছিলেন, ‘‘অমিতাভের মাথায় কি কিছু আছে? আর তাঁকে নিয়েই মিডিয়া এত মাতামাতি করে। তাঁদের মাথাও ফাঁকা বোধ হয়!’’
এর জবাবে অমিতাভ বলেছিলেন, ‘‘উনি (কাটজু) ঠিকই বলেছেন, আমার মাথায় কিছুই নেই।’’
এটাই প্রথম বার নয়। এর আগেও তাঁর সহকর্মীদের কাছে অপমানিত হতে হয়েছে অমিতাভকে। তাঁর বিরুদ্ধে লোভ এবং শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগও তুলেছেন কেউ কেউ।
অমিতাভের সমসাময়িক অভিনেতা শত্রুঘ্ন সিনহা এবং কাদের খান তাঁকে ‘মনোযোগ আকর্ষণকারী’ বলে অভিযোগ তুলেছেন। বিস্ফোরক অভিযোগ তুলেছিলেন বিগ বি-র বন্ধু তথা রাজনীতিবিদ অমর সিংহও। বলেছিলেন, অমিতাভ বচ্চন লোভী। তিনি নাকি দেউলিয়া অবস্থায় অমর সিংহের কাছ থেকে বহু সাহায্য নিয়েছিলেন। অথচ অমর সিংহের প্রয়োজনে গুরুত্ব দেননি।
অভিনেত্রী তথা প্রাক্তন মিস ইন্ডিয়া ওয়ার্লড সায়লি ভগত ২০১১ সালে এক বার অমিতাভের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ তোলেন। পুলিশে অভিযোগ দায়ের করার পর সায়লি জানান, তিনি সাইবার জালিয়াতির শিকার। তাঁর নামে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খুলে ইমেল করা হয়েছে। পরে অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টির রফা করেন অভিনেত্রী। ক্ষমাও চেয়ে নেন।

You may also like

এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ, পাস করেছে -ছয় লাখ ৫৪ হাজার

চলতি বছরের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত