বিল আদায়ে স্বচ্ছতা ও গ্রাহকের ভোগান্তি দূর করতে আগামী জুনের মধ্যে নতুন করে বিদ্যুতের আরো প্রায় ৭ লাখ প্রি-পেইড মিটার দেয়া হবে।

এমন তথ্য জানিয়ে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেন, ভবিষ্যতে কাগজের বিল উঠিয়ে দিতে চায় সরকার। অন্যদিকে গ্রাহকরা বলছেন, মিটার বসালেই চলবেনা, লো-ভোল্টেজ সমস্যা দূর করা এবং কার্ড রিচার্জ পদ্ধতি সহজলভ্য করতে হবে।

দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ কিংবা ভুতুড়ে বিলের ভোগান্তি দূর করতেই গ্রাহকদের প্রি-পেইড মিটার দিচ্ছে বিদ্যুৎ বিভাগ।
গত তিন বছরে ঢাকা ও চট্টগ্রামে পাঁচ লাখেরও বেশি গ্রাহককে বিদ্যুতের প্রি-পেইড মিটার দেয়া হয়েছে। গ্রাহকরা জানালেন, ব্যবহার করে বিল দেয়ায় সাশ্রয় হচ্ছে।

ভুতুরে বিলের শঙ্কা নেই, কিন্তু ভোগান্তি রয়েছে কার্ড রিচার্জে। বিদ্যুৎ বিভাগের নির্দিষ্ট ভেন্ডর ছাড়া কার্ড টাকা রিচার্জ সম্ভব নয়। এ নিয়ে অসন্তোষ রয়েছে প্রি-পেইড মিটার গ্রাহকদের।

তবে, গ্রাহকদের ভোগান্তি কমাতে আশ্বাস দিলেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী। জানালেন, দুর করা হবে মিটারের কারিগরি ত্রুটি। প্রয়োজনে বিশেষ আইন ব্যবহার করার কথাও জানান তিনি।

বর্তমানে দেশে পাইলট প্রকল্পের আওতায় প্রি-পেইড গ্রাহক আছেন প্রায় দশ লাখ।

You may also like

নওগাঁর মান্দায় ট্রাক উল্টে ছয়জন নিহত

মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনিসুর রহমান জানান, সকাল