কালো মখমল

ধারাবাহিক নাটক ‘কালো মখমল’ বাংলাভিশনে প্রচারিত হচ্ছে প্রতি সপ্তাহে বৃহস্পতি থেকে শনিবার রাত ৯টা ৪৫মিনিটে। পান’ শাহ্‌রিয়ার-এর রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন নিয়াজ মাহবুব। নাটকটিতে অভিনয় করেছেন আজাদ আবুল কালাম, তানিয়া আহমেদ, তারিন, ইনেত্মখাব দিনার, নওশাবা, দীপান্বিতা, আশরাফ রন্টু, ঝন্টু বায়ান, লিপি, লাবনি, তৃষা প্রমুখ।

 

নূসরাত, নতুন এক একান্নবর্তী পরিবারে তার প্রবেশ। এই পরিবারের মানুষগুলোকে চিনে নিতে, আপন করে নিতে কিছুদিন সময় তো চাই নূসরাতের। কিন’ তার আগেই নূসরাত আবিষ্কার করে এরা কেবল ধর্র্মভীরু নয় ভীষণ ধর্ম গোড়া। তারা একের পর এক বাধা দিতে শুরু করে নূসরাতের স্বাধীনতায়। তারা পছন্দ করে না কোন ঘরের মেয়ের ডাক্তারী পড়তে চাওয়া। নূসরাতের স্বামী মুরাদ সবসময়ই নীরব থেকে যাচ্ছে। নূসরাতকে সকলে মিলে যেন এক হুমোট অন্ধকারের দিকে ঠেলে দিতে চাইছে। নূসরাত কিভাবে প্রতিবাদ করবে? স্বামী যখন নীরব। এদের গোড়ামীর সাথে একা একা আর পেরে ওঠে না নূসরাত। এমন সময় সে জানতে পারে নিজের সন-ান আগমনের বার্তা। ভেবে নেয় এবার বুঝি তার এই রুদ্ধতার থেকে বেরিয়ে আসবার পালা। কিন’ আবার বাধ সাধে তার শশুর বাড়ীর লোকেরা কারণ তাদের সাফ কথা পরিবারের প্রথম সন-ানের জন্ম হবে বাপ দাদার ভিটায় অর্থাৎ গ্রামে।

 

এবারও কি চুপ করেই থাকবে নূসরাত? নাকি আবার কোন প্রতিবাদ ভেতর থেকে গুমরে উঠেও বেরিয়ে আসতে পারবে। নাকি হার মেনে নেবে গোড়ামীর কাছে, অসহায় নূসরাত। নিজেকে ওদের হাতে আত্মসমর্পণ করে দেয়া নূসরাতকে নিয়ে চলতে থাকে একের পর এক নিরীক্ষা। আর এই সব কিছুর ফলাফল নূসরাতের বাচ্চার অপমৃত্যু। তারপর শুধুই শূণ্যতা, বিশ্বাস এর অপমৃত্যু নাকি আবার জেগে উঠবে নূসরাত একদিন, সৃষ্টি হবে আরেক রেনেসার।

You may also like

‘কান’-এর রেড কার্পেটে রূপকথা তৈরি করলেন ঐশ্বর্যা

৭০তম কান চলচ্চিত্র উৎসবের রেড কার্পেটে ঐশ্বর্যাকে দেখে