ভারতে জরুরি ভিত্তিতে করোনা ভ্যাকসিনের ছাড়পত্র চায় ফাইজার

যুক্তরাষ্ট্রের সংস্থা ফাইজার এবার সদ্য উদ্ভাবিত করোনা ভ্যাকসিন ভারতে জরুরি ভিত্তিতে অনুমোদন আদায়ের আবেদন করেছে। ড্রাগস্ কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া-ডিসিজিআই-এর কাছে এই আবেদন করা হয়েছে। ডিজিসিআই চাইলে ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল ছাড়া এই ভ্যাকসিনকে ছাড়পত্র দিতে পারে।

 

গবেষণার ভিত্তিতে ফাইজার-বায়োএনটেকের দাবি, তাদের উদ্ভাবিত করোনা ভ্যাকসি কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়া ৯০ থেকে ৯৫ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকর। গুরুতর রোগীর ক্ষেত্রে এই টিকা প্রায় ১০০ শতাংশ পর্যন্ত কাজ করবে বলেও দাবি করেছে তারা। সম্প্রতি ফাইজার-বায়োএনটেকের তৈরি করোনা ভ্যকসিন  জরুরি ভিত্তিতে ছাড়পত্র দিয়েছে  ব্রিটেন এবং বাহরাইন।

৪ ডিসেম্বর জমা দেয়া ফাইজারের ওই আবেদনে বলা হয়, ‘ভারতে ওই টিকা বিদেশ থেকে আমদানি করে অবিলম্বে ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হোক। ২০১৯-এর নিউ ড্রাগস অ্যান্ড ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালস আইন অনুযায়ী ভারতীয়দের উপর এই টিকার ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের উপর ছাড় দেওয়া হোক’।

 

গত বুধবার ফাইজার-বায়োএনটেকের তৈরি করোনা ভ্যকসিনকে চূড়ান্ত অনুমোদন দেয় যুক্তরাজ্য। আগামী মঙ্গলবারের ভেতরে এই ভ্যাকসিন যুক্তরাজ্যের সব হাসপাতালে পৌছে যাবে। মূলত এরপর থেকেই যুক্তরাজ্য জুড়ে করোনা ভ্যাকসিন দেয়ার কর্মসূচি শুরু হবে। ধারণা করা হচ্ছে মঙ্গল বা বুধবার থেকে এই কর্মসূচি শুরু হবে। তবে, এই কর্মসূচিতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা গ্রহণের সুযোগ পাবেন বৃদ্ধ ব্যক্তি, স্বাস্থ্যকর্মী এবং বাড়িতে রোগীদের দেখভালকারীরা।

 

২ কোটি মানুষকে এই টিকাদান কর্মসূচির আওতায় আনতে ফাইজার-বায়োএনটেককে ৪ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন তৈরির অর্ডার দিয়েছে যুক্তরাজ্য সরকার।  প্রত্যেককে দুই ডোজ টিকা নিতে হবে।

You may also like

অনৈতিক কাজে ক্ষমতা খাটাবেন না নয়া মেয়র

অন্যায়-অনৈতিক কাজে ক্ষমতাকে ব্যবহার না করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে