জঙ্গিবাদের অন্ধকার ছেড়ে আলোর পথে

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, বাংলাদেশ জঙ্গিবাদকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দেয় না।  এ পথে যারা আছে তাদের সবাইকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে এনে পুনর্বাসনের আশ্বাসও দিয়েছেন তিনি।

জঙ্গিবাদ থেকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চাওয়া ৯ ব্যক্তির র‍্যাবের কাছে আত্মসমর্পণের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ আশার কথা শোনান। জঙ্গিবাদকে যেকোন মূল্যে নিশ্চিহ্ন করার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি। ওই অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বিভিন্ন সময়ে র‍্যাবের অভিযানে গ্রেফতার হওয়া জঙ্গিরা স্বাভাবিক জীবনে ফেরার ইচ্ছা জানালে তিন থেকে ছয় মাসের প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তাদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনার উদ্যেগ নেয়া হয়। জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ হয়ে চার বছর আগে স্বজনদের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যান শাওন মুনতাহা ইবনে শওকত ও তার স্ত্রী নুসরাত আলী জুহি। বৃহস্পতিবার র‍্যাবের কাছে আত্মসমর্পণের মাধ্যমে তারা ফিরে এসেছেন পরিবারের কাছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে এই দম্পতি ছাড়া আরো সাতজন আত্মসমর্পণ করেন। এদের মধ্যে দুইজন নারী ও সাতজন পুরুষ।

ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত পুলিশের মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদ বলেছেন, আলেমদের জঙ্গিবাদ নিয়ে কথা বলতে হবে। এ ব্যাপারে আলেমদের অবস্থান স্পষ্ট করার আহ্বানও জানান তিনি। জঙ্গিবাদকে রাজনৈতিক বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

র‍্যাব কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এসব তরুণ ও যুবকের মস্তিস্কে যে ধারণা বা মতবাদ বসে আছে তা অস্ত্র দিয়ে নির্মূল করা যাবে না। তাদের বুঝিয়ে এখান থেকে বের করতে হবে। র‍্যাব জঙ্গি সেজে তাদের সাথে মিশে ধীরে ধীরে তাদেরকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে এনেছে বলেও জানানো হয় অনুষ্ঠানে।

You may also like

চলচ্চিত্র শিল্পের উন্নয়নে হাজার কোটি টাকার ফান্ড

চলচ্চিত্র শিল্পের উন্নয়ন এবং উপজেলা পর্যায় পর্যন্ত সিনেমাকে