বিজয়ী কাউন্সিলর হত্যা, উত্তপ্ত সিরাজগঞ্জ

গাইবান্ধা পৌর নির্বাচনের ফল ঘোষণা নিয়ে হামলা, গাড়ি ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ৯০ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো দেড়শ’ জনের বিরুদ্ধে দু’টি মামলা করেছে র‍্যাব ও পুলিশ। গ্রেফতার করা হয়েছে পাঁচজনকে। এদিকে, বিজয়ী কাউন্সিলর হত্যার ঘটনায় উত্তপ্ত সিরাজগঞ্জ।

গাইবান্ধায় হামলা, গাড়ি ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় র‍্যাব ৪১ জনের এবং পুলিশ ৪৭ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেছে।

 

শনিবার রাতে দায়ের করা দুই মামলায়ই প্রধান আসামি স্বতন্ত্র প্রার্থী আনোয়ার-উল সরোয়ার সাহিব। শনিবার নির্বাচন শেষে গাইবান্ধার পূর্ব কোমরনই সরকারি প্রাইমারি স্কুল কেন্দ্রের নির্বাচনী সরঞ্জামাদি আটকে দেয় বিক্ষুব্ধ জনতা। এক পর্যায়ে আইন শৃংখলা বাহিনীর সাথে তাদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। ভাংচুর ও আগুন দেয়া হয় পুলিশের গাড়িতে।

এদিকে, সিরাজগঞ্জে বিজয়ী কাউন্সিলর তরিকুল ইসলাম খুনের ঘটনায় বিক্ষোভ হয়েছে।

রবিবার সকালে নতুন ভাঙ্গাবাড়ি এলাকা থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে স্থানীয়রা। নিহতের বাড়িতে যান পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। দ্রুত অপরাধীদের আইনের আওতায় আনার আশ্বাস দেন রাজশাহী রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি টি এম মোজাহিদুল ইসলাম।

 

You may also like

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মোহামেডানের সভাপতি হচ্ছেন সাবেক সেনা প্রধান আব্দুল মুবিন

মোহামেডান ক্লাবের বহু প্রতীক্ষিত সাধারণ সভা ও নির্বাচন