পানছড়িতে রাকিব হত্যাকান্ডে অভিযুক্তের পাল্টা সংবাদ সম্মেলন

খাগড়াছড়ির পানছড়ি সরকারি কলেজের প্রথম বর্ষের মেধাবী ছাত্র রাকিব হোসেনের হত্যার ঘটনায় জড়িত থাকার বিষয়টি অস্বীকার করে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করেছে অভিযুক্ত রিপনের পরিবার। তাদের দাবি, সুনাম ক্ষুণ্ণ করতে তাদের ফাঁসানোর জন্য ষড়যন্ত্রমূলকভাবে এ অভিযোগ দেয়া হচ্ছে। সম্মেলন থেকে হত্যাকান্ডে জড়িতদের ধরে মূল ঘটনা উদঘাটনের দাবি জানানো হয়।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বর্তমান ইউপি সদস্য মোঃ রিপন মিয়া ও তাঁর পরিবার। নিহত রাকিবের পরিবারের অভিযোগের প্রেক্ষিতে রিপন মিয়া জানান, রাকিবের সাথে তাঁর মেয়ের যোগাযোগ থাকলেও মৃত্যুর দুই মাস আগে থেকে বন্ধ হয়ে যায়। রাকিবকে মারধরের বিষয়টিও অসত্য। মূলত: আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সুনাম ক্ষুন্ন করতে নিহত রাকিবের বাবাকে দিয়ে একটি কুচক্রী মহল ষড়যন্ত্র করছে বলে দাবি করেন রিপন মিয়া।

গত ১৯ জানুয়ারি রাতে পানছড়ি বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে সন্ত্রাসীরা রাকিব হোসেনকে আটকে কুপিয়ে হত্যা করে। হত্যাকান্ডের প্রায় এক মাস পর গত ১৮ ফেব্রুয়ারি কলেজ পড়ুয়া রাকিব হোসেনের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার ও সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করে প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে তাঁর পরিবার। সংবাদ সম্মেলনে রাকিবের পরিবার অভিযোগ করে, মো. রিপনের মেয়ের সাথে প্রেমের সম্পর্ক থাকায় গত ১৯ জানুয়ারি রাতের আঁধারে পানছড়ি বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে সন্ত্রাসীরা রাকিবের মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে ধরালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। পরে রাকিবের পরিবারের পক্ষ থেকে পানছড়ি থানায় আসামিদের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করতে চাইলে পুলিশ অজ্ঞাত ব্যাক্তিদের আসামি করে মামলা নেয়। কিন্তু হত্যাকান্ডের একমাস পার হলেও এখন পর্যন্ত আসামিরা গ্রেফতার হয়নি।

 

বিভি/এনজি

You may also like

কুষ্টিয়ায় ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত; রাজশাহী থেকে খুলনার ট্রেন চলাচল বন্ধ

মালবাহী ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হয়েছে কুষ্টিয়ায়। এতে বন্ধ