ছয় মানব পাচারকারির বিরুদ্ধে ইন্টারপোলের রেড এলার্ট

লিবিয়ায় মানব পাচারের ঘটনায় বিদেশি দু’টি এয়ার‍লাইন্স জড়িত বলে দাবি করেছেন সিআইডি প্রধান ও অতিরিক্ত আইজিপি ব্যারিস্টার মাহাবুবুর রহমান। মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর মালিবাগে সিআইডি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন। বিদেশে পলাতক ছয় মানব পাচারকারির বিরুদ্ধে ইন্টারপোল রেড এলার্ট জারি করেছে বলেও জানান তিনি।

এয়ারলাইন্স দুটির নাম প্রকাশ না করলেও সিআইডি প্রধান বলেছেন, সেগুলো বাংলাদেশের কোনো কোম্পানি নয়। তদন্তে দেখা যায়, এ দু’টি এয়ারলাইন্স সিঙ্গেল টিকেটে লোক পাঠিয়েছেন, যা অন্যায়। কোনো সেমিনারে, চিকিৎসা নিতে; এমনকি ভ্রমণে গেলেও কখনো সিঙ্গেল টিকেটে যাওয়ার কথা নয়। ঐ দু’টি এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ তাদের নিজস্ব তদন্তেও বিষয়টি দেখতে পেয়েছে বলে জানান মাহবুবুর রহমান।

২০১৯ সালের মে মাস হতে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ৩৮জন ব্যক্তিকে উচ্চ বেতনের প্রলোভনে লিবিয়ায় নিয়ে যায় দেশি-বিদেশি আর্ন্তজাতিক মানব পাচারকারী চক্র। এরপর প্রত্যেকের কাছ থেকে মোটা অংকের মুক্তিপণ আদায়ের পর ২৬মে গুলি করে হত্যা করা হয় ২৬ জনকে। গুরুতর আহত হয় ১২জন। ঐ ঘটনায় সারা দেশে ২৬টি মামলা হয়, বর্তমানে ২৫টি মামলা তদন্ত করছে সিআইডি। এজহারভুক্ত ২৯৯ আসামির মধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে ১৭১জনকে। বিদেশে পলাতক ছয় আসামি, মন্টু মিয়া, তানজিমুল, জাফর ইকবাল, নজরুল ইসলাম, শাহাদাত হোসেন ও স্বপনের বিরুদ্ধে রেড এলার্ট জারি করেছে ইন্টারপোল। ইতালিতে তানজিমুলের অবস্থান শনাক্ত হলেও বাকিদের অবস্থান অজানা।

এরই মধ্যে ৪২ আসামি আদালতে দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে। মানব পাচারে সহযোগিতায় জড়িতদেরও আইনের আওতায় আনার কথা জানান সিআইডি প্রধান। গেলো তিন অক্টোবর ৯ জন ভিকটিমকে লিবিয়া থেকে দেশে ফিরিয়ে এনেছে সিআইডি।

You may also like

২৮ জানুয়ারি, বৃহস্পতিবার ২০২১

সকাল ৮:৩০ : অনুষ্ঠান ‘দিন প্রতিদিন’। সকাল ১০:৩০