শেষমেষ কি অভিশংসিত হচ্ছেন ট্রাম্প

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অভিশংসনের জন্য বিচারিক প্রক্রিয়া শুরু করতে পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ-সিনেটে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিল করেছে নিম্নকক্ষ-প্রতিনিধি পরিষদ। ক্ষমতার মসনদ থেকে সদ্য বিদায় নেয়া এই মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত বিচার প্রক্রিয়া শুরুর আনুষ্ঠানিক পদক্ষেপ এটি।

স্থানীয় সময় সোমবার প্রতিনিধি পরিষদের অভিশংসন ব্যবস্থাপকেরা সিনেটে প্রস্তাবটির দলিল পেশ করেন। অভিশংসন প্রস্তাবটি পাঠ করেন ডেমোক্র্যাট কংগ্রেসম্যান জ্যামই রাসকিন। এই অভিশংসন প্রস্তাবে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে নির্বাচনে ভোট জালিয়াতির ভুয়া দাবি তোলা, নির্বাচনব্যবস্থাকে দুর্নীতিগ্রস্ত করার প্রয়াসসহ গত ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল হিলে হামলার জন্য সমর্থকদের উসকানি দেওয়ার বিবরণ আছে।

১৩ জানুয়ারি ট্রাম্পকে অভিশংসিত করার প্রস্তাব পাস করে যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট-কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ-প্রতিনিধি পরিষদ। ট্রাম্পের দল রিপাবলিকান পার্টির ১০ জন সদস্যও ডেমোক্রেটিক পার্টির উত্থাপিত অভিশংসন প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দেন। প্রস্তাবটি ২৩২-১৯৭ ভোটে পাস হয়। এতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দ্বিতীয়বারের মত অভিশংসিত হয়ে বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন ট্রাম্প।

সিনেটে ডেমোক্রেটিক পার্টির নেতা চাক শুমার বলেছেন, ১৮৭৬ সালে কংগ্রেসে মার্কিন সংবিধানের ব্যাখ্যায় ক্ষমতা থেকে চলে যাওয়ার পরও দণ্ড কার্যকর বিধান রয়েছে। সিনেটে অভিশংসন প্রস্তাবটি পাস হলে ২০২৪ সালের নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার পথ রুদ্ধ হবে ট্রাম্পের জন্য।

You may also like

করোনায় ৭ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৬১৯ জন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণে ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও সাত জন