পুতিনের সাথে প্রথম ফোনালাপেই বাইডেনের সতর্কবার্তা

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেয়ার পর জো বাইডেন প্রথমবারের মতো ফোনালাপ করলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে। ফোনালাপে যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের ব্যাপারে সতর্ক করেছেন বাইডেন।

রাশিয়ায় বিরোধীদের বিক্ষোভ এবং চলমান যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়া পরমাণু অস্ত্র চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর বিষয়েও আলোচনা করেন পুতিন ও বাইডেন। আন্তর্জাতিক ও দু’দেশের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট ইস্যুতে একসাতে কাজ করার বিষয়ে একমত পোষণ করেন তারা।

মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসের বিবৃতিতে বলা হয়, রাশিয়ার কোনো কর্মকাণ্ডে যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্রদের ক্ষতি হলে তা প্রতিরোধে শক্ত ভূমিকা নেয়ার স্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন।

আর রাশিয়ার সরকারি মুখপাত্র জানিয়েছেন, সাবলিল ফোনালাপ করেছেন পুতিন ও বাইডেন। জানানো হয়, পারস্পরিক স্বার্থের বিষয়টি বিবেচনায় রেখে বিশ্বের স্থিতিশীলতা ও ভারসাম্য রক্ষায় একসাথে কাজ করবে রাশিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্র।

ক্ষেপণাস্ত্র, সমরাস্ত্র এবং পরমাণবিক অস্ত্রের মজুদ নির্দিষ্ট সীমার মাধ্যে রাখতে যুক্তরাষ্ট্রের সাথে রাশিয়ার চুক্তি আগামী মাসেই শেষ হবে। এবিষয় নিয়েও কথা বলেন দুই নেতা। এই চুক্তির মেয়াদ নবায়নের প্রস্তাবে সই করতে অস্বীকৃতি জানিয়ে গেছেন সদ্য বিদায় নেয়া প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আগামী মাসেই শেষ হবে এই চুক্তির মেয়াদ।

সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের পক্ষে অবস্থান নিয়ে বিদ্রোহী দমনের অজুহাতে একের পর এক হামলা এবং আন্তর্জাতিক আপত্তি উপেক্ষা করে ইউক্রেনের ক্রিমিয়া অঞ্চল দখলের ঘটনায় রাশিয়ার কট্টর সমালোচক ছিলেন বারাক ওবামার শাসনামলে ভাইস প্রেসিডেন্টের দায়িত্বে থাকা জো বাইডেন। এই দূরত্বে নতুন রসদের জোগান দেয় ২০১৬ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের অভিযোগ। পুরানো এসব দ্বন্দের রেশ টেনে নয়া মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেনের সাথে রাশিয়ার সম্পর্ক কোন দিকে মোড় নেবে সেই অপেক্ষায় শুধু দুই দেশের সাধারণ জনগণই নয়; উদ্বিগ্ন অপেক্ষায় সচেতন বিশ্ববাসী।

You may also like

করোনায় ৭ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৬১৯ জন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণে ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও সাত জন