এএসপি আনিসুলকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে আটক দশ

সিনিয়র এএসপি আনিসুল করিমকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে আদাবরের মানসিক হাসপাতাল মাইন্ড এইড কেয়ার ইন্সটিটিউটের দশজনকে আটক করা হয়েছে। কথিত এ মানসিক হাসপাতালটি কোন অনুমোদন ছিল না বলে জানিয়েছেন ঢাকার সিভিল সার্জন ডাক্তার মইনুল আহসান । তদন্তের মাধ্যমে হত্যার কারণ ও উদ্দেশ্য উদঘাটন করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সোমবার সকালে রাজধানীর আদাবরে মাইন্ড এইড কেয়ার ইন্সটিটিউটে চিকিৎসা দিতে নেয়া হয় সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আনিসুল করিমকে। ভর্তি প্রক্রিয়া চলার মিনিট দশেকের মধ্যেই মারা যান তিনি। সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজে দেখা যায় সাত থেকে আটজন আনিসুলকে ফ্লোরে ফেলে হাত বাঁধার চেষ্টা করছে। করা হয় মারধরও।

বিশ দিন ধরে হাসপাতালটিতে ভর্তির প্রত্যক্ষদর্শী আরিফও দিলেন ঘটনার বর্ণনা। ঘটনাটিকে হত্যা দাবি করে আদাবর থানায় মামলা করেছে পুলিশ। জড়িত দশজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। যাদের মধ্যে একজন ডাক্তারও নেই। তদন্তে আসামির সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে জানান তেজগাঁও বিভাগের ডিসি। অনুমোদন না থাকায় মাইন্ড এইড কেয়ার ইন্সটিটিউটটি সিলগালা করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। জিয়া খান, বাংলাভিশন, ঢাকা।

You may also like

১৭ জানুয়ারি, রবিবার ২০২১

সকাল ৮:২৫ : বাংলায় ডাবিংকৃত জনপ্রিয় চাইনিজ শিশুতোষ