বিলম্বিত শীতের দেখা মিলেছে উত্তরের জনপদে

কার্তিকের শেষে শীতের দেখা মিলেছে উত্তরে। ভোরের শিশির সূর্যের আলোতে মুক্তার মতো আলো ছড়িয়ে জানান দিচ্ছে, শীত আসছে। তবে সন্ধ্যা থেকে সকাল পর্যন্ত হিমভাব থাকলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথেই তা হারিয়ে যাচ্ছে। কুয়াশামাখা প্রকৃতি, মাঠে মাঠে নানা ফসলের সম্ভাবনা আর শরীরে শুস্কতার টান বলে দিচ্ছে শীত আসছে।

শিশির ভেজা ভোরের এক রাশ সজীব স্বপ্ন নিয়ে প্রকৃতি কাছে টানছে মানুষকে। ফসলের উৎসবে নিমগ্ন খেটে খাওয়া মানুষ। যদিও শীত কারো জন্য ভালো লাগা, আবার কারো জন্য কষ্টের। অন্য বছরগুলোতে কার্তিকের শুরুতে এই অঞ্চলে শীতের দেখা মিললেও এবারের চিত্র ভিন্ন। ভোর থেকে শীত শীত ভাব থাকলেও সূর্য ওঠার সাথেই তেঁতে উঠছে পরিবেশ।

মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে আসছে না উত্তরের হিম বাতাস। জলবায়ুর পরিবর্তনে এবছর উষ্ণতম শীত হতে পারে বলে মনে করছেন আবহাওয়াবিদরা। শীতের সময় সুস্থ থাকতে সবাইকে শরীরের বাড়তি যত্ন নেয়া আর সজাগ থাকার পরার্মশ চিকিৎসকদের। গত ২০ দিন ধরে উত্তরাঞ্চলে তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ৩৩ আর সর্বনিম্ন ১৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ওঠানামা করছে ।

 

You may also like

বাঁধাকপি বিদেশে রফতানি, খুশি চাষীরা

বাংলাদেশের বাঁধাকপি এখন বিদেশে রফতানি হচ্ছে। এরই মধ্যে