আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়লো একমাস

করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময়সীমা এক মাস বাড়িয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড। এ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আয়কর দেয়া যাবে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এদিকে, শেষ দিন ভেবে সোমবার রিটার্ন দাখিলে বিভিন্ন কর অঞ্চলে ভিড় করেন করদাতারা। এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মোঃ রহমাতুল মুনিম জানিয়েছেন, কর আহরণ বাড়াতে করদাতাদের জন্য আরো বেশি স্বস্তিদায়ক পরিবেশ তৈরির চেষ্টা চলছে।

কিছু পেতে নয়, মানুষের এ দীর্ঘ সারি আয়কর বিবরণী জমা দিতে। ৩০ নভেম্বর রিটার্ন দাখিলের শেষদিন ঘোষিত থাকায় আয়কর অফিসে ভিড় জমে করদাতাদের। করোনা মহামারির কারণে এবার মেলা না হলেও নিজস্ব বুথ সাজিয়ে বিবরণী জমা নেন করকর্মকর্তারা। এরপরও মেলার মতো স্বাচ্ছন্দে কর দেয়া নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া জানান অনেকে।

কর দিতে গিয়ে বিভিন্ন জটিলতার পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি নিয়েও অসন্তোষ কারো কারো। তবে, কর কর্মকর্তারা বলছেন, মেলার মতোই আনন্দঘন পরিবেশে রিটার্ন জমা নেন তারা। মেলার অভিজ্ঞতায় এবার বেড়েছে রিটার্ন দাখিলের সংখ্যাও।

এনবিআর চেয়ারম্যান সাংবাদিকদের জানান, কোভিড-১৯ বিবেচনায় আয়কর রিটার্ন জমার মেয়াদ ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। আয়কর বাড়াতেও সবকিছু করা হচ্ছে করদাতাবান্ধব।
সিংক- আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম, এনবিআর চেয়ারম্যান । বর্ধিত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত অপেক্ষা না করে দ্রুততম সময়ের মধ্যে আয়কর বিবরণী দাখিলের পরামর্শ দিয়েছেন কর কর্মকর্তারা।

জিয়াউল হক সবুজ, বাংলাভিশন, ঢাকা।

You may also like

বাঁধাকপি বিদেশে রফতানি, খুশি চাষীরা

বাংলাদেশের বাঁধাকপি এখন বিদেশে রফতানি হচ্ছে। এরই মধ্যে