ঘুম বেশি হওয়ার চেয়ে না-হওয়া খুবই খারাপ

ঘুম বেশি হওয়ার চেয়ে না-হওয়া খুবই খারাপ। ভালো ঘুম না-হলে কোনো কাজেই মন বসে না, মেজাজ খিটিমিটি হয়। শৈশবে ১০ থেকে ১২ ঘণ্টা, কৈশোরে ৮-৯ ঘণ্টা, যৌবনে অন্তত সাড়ে ছয় ঘণ্টা ঘুমানোর দরকার হয়। আমরা অনেক সময়ই পরিমাণমতো বা প্রয়োজনমতো ঘুমাতে পারি না। রাত একটা দুটোর দিকে ঘুমিয়ে অনেককেই ছটার মধ্যে উঠে পড়তে হয়।

শোয়ার পরও অনেকের চোখে ঘুম আসে না। দুশ্চিন্তা, দুর্ভাবনা কিংবা আগামীকালের জন্যে অস্থিরতার কারণেও ঠিকমতো ঘুম হয় না। যাদের চোখে খুব সহজে ঘুম আসে না তারা রাতে ঘুমানোর আগে খুব সিরিয়াস কিছু পড়বেন না, কিংবা দেখবেন না। যারা কোনোরকম শারীরিক পরিশ্রম করেন না, হাঁটেন না, ব্যায়াম করেন না তাদেরও ঘুমের ব্যাঘাত ঘটতে পারে।

তাই শুয়ে পড়ার দশ-পনের মিনিটের মধ্যে যারা ঘুমাতে পারেন না, তারা শোয়ার আগে অন্তত ১৫ মিনিট ঘরের মধ্যে কিংবা বারান্দায় একটু হাঁটাহাঁটি করবেন, এতে কিছুটা শারীরিক ক্লান্তি তৈরি হলে আপনার চোখে ঘুম আনাটা সহজ হবে।

You may also like

নিউজিল্যান্ডের কাছে ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইট-ওয়াশই হলো বাংলাদেশ

নিউজিল্যান্ডের কাছে ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইট-ওয়াশই হলো বাংলাদেশ। তবে,