কচু চাষে কিশোরগঞ্জের কৃষকদের ভাগ্য বদল

কচু চাষ বদলে দিচ্ছে কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর উপজেলার কৃষি অর্থনীতি। অল্প খরচে বেশি মুনাফা হওয়ায় ধানের পরিবর্তে কচু চাষের প্রতি ঝুঁকছেন কৃষকরা।আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছেন তারা। কচু ও লতির মান ভাল থাকায় দেশের গন্ডি পেরিয়ে যাচ্ছে বিদেশে।

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে কচু চাষ। কৃষি বিভাগের পরামর্শ ও সহায়তায় কুলিয়ারচর উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের চাষিরা প্রতিবছরই কচু চাষ করে লাভবান হচ্ছেন। কচু লাগানোর দেড় – দুই মাস পর থেকেই লতি বিক্রি করা যায়। স্বল্প খরচে অধিক মুনাফা হওয়ায় চাষিরা এ আবাদের দিকে ঝুঁকছেন।

কচু ও লতির চাহিদা অনেক বেশী হওয়ায় দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করে ভাল দাম পাচ্ছেন পাইকাররা। কচু চাষে সবধরণের সহযোগিতার আশ্বাস কৃষি কর্মকর্তার। লাভজনক হওয়ায় দিন দিন আবাদ বেড়ে চলছে কচু চাষের। এ বছর কুলিয়ারচরে তিনশ হেক্টর জমিতে কচু চাষ হয়েছে।

 

You may also like

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ৮৭ রুটে ৪৮ ঘণ্টার ধর্মঘট

আজ সন্ধ্যা ৬টা থেকে ২৪ ঘন্টা চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক