পেঁয়াজের দাম কিছুটা কমলেও চালসহ কয়েকটি নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধি

পেঁয়াজের দাম কিছুটা কমলেও অব্যাহত রয়েছে চালের দাম বৃদ্ধি। পাশাপাশি বেড়েছে ময়দা, ভোজ্য তেল, শুকনো মরিচ, চিনিসহ কয়েকটি পণ্যের দাম। খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, কেউ অহেতুক চালের দাম বাড়ানোর চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে, গুজব ছড়িয়ে একটি মহল লবনের দাম বাড়ানোর চক্রান্ত করেছে বলে অভিযোগ করেছেন ব্যবসায়ীরা।

বেশ কিছুদিন ধরেই নিত্যপণ্যের বাজারে অস্থিরতা। নানা অজুহাতে বিভিন্ন পণের দাম বাড়িয়ে মুনাফা লুটে নেয়ার চেষ্টা একদল সিন্ডিকেটের। এরই মধ্যে হঠাৎই গরম ময়দার বাজার। বস্তা প্রতি বেড়েছে ৫০০ টাকা। কিন্তু কেন এই মূল্যবৃদ্ধি? চড়া ভোজ্যতেলের বাজারও। লিটারপ্রতি ২ থেকে ৪ টাকা বেড়েছে পাইকারিতেই।

গত এক সপ্তাহের ধারাবাহিকতায় উর্ধ্বগতিতে চালের বাজার। দিশেহারা সাধারণ মানুষ। এদিকে পেঁয়াজ প্রতি কেজিতে ২০-৩০ টাকা কমেছে। তবে বিদেশ থেকে আমদানি করা পেঁয়াজের চালান দেশে ঢুকলে দাম স্বাভাবিক হবে বলে আশা করছেন তারা। ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন দেশে পর্যাপ্ত লবন মজুদ রয়েছে। তাই এই পণ্যটির দাম বাড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। খাদ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, চালের পর্যাপ্ত মজুত আছে। দাম বৃদ্ধির কোনো কারণ নাই। যথাযথভাবে বাজার মনিটরিং করতে সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছেন ভোক্তারা।

 

.

You may also like

ওয়াশিংটনসহ ২৫টি শহরে কারফিউ

কারফিউ জারি আর ন্যাশনাল গার্ড সদস্যদের মোতায়নের পর