গাছতলায় সন্তান প্রসব, ৩টি কমিটি গঠন

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায় সরকারি হাসপাতাল থেকে বের করে দেওয়ার পর গাছতলায় সন্তান প্রসব করেছেন এক নারী। স্বাভাবিক সন্তান প্রসব ঝুকিপূর্ণ হতে পারে এমন অজুহাতে তাকে ছাড়পত্র দিয়ে বের করে দেন নার্স। ঘটনার পর অভিযুক্ত নার্সকে শোকজ করে দায় সেরেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ঘটনা তদন্তে বরাবরের মতো আলাদা তিনটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

শুক্রবার রাতে প্রসব বেদনা নিয়ে বোদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয় রীনা বেগম। প্রথম সন্তান সিজার হওয়ায় এবারের সন্তান স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় হবে না উল্লেখ করে নার্স সাবানা বেগম প্রসূতিকে হাসপাতাল ছাড়তে বলেন। স্বামী ফিরে আসার অপেক্ষায় বেডেই বসে ছিলেন রীনা। কিন্তু নার্সের বার বার তাগাদায় তার ননদ তাকে নিয়ে হাসপাতালের সামনের একটি গাছের নিচে আশ্রয় নেন। কিছুক্ষণ পর সেখানেই পুত্র সন্তানের জন্ম দেন রীনা।

এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ রোগীর স্বজন ও স্থানীয়রা। অভিযুক্ত নার্সের বিচার চান তারা। রোগীর প্রয়োজনেই ছাড়পত্র দেওয়া হতে পারে বলে অভিযুক্ত নার্সের পক্ষে সাফাই দেন স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা। স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তাদের দায়িত্বশীল আচরণের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

 

You may also like

যুক্তরাষ্ট্রে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার হুমকি পুতিনের

ইউরোপে মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন হলে পশ্চিমা দেশগুলোর রাজধানীতে