ধামরাইতে ভূঁয়া জন্মদিন পালনের নামে এক নারী শ্রমিককে ধর্ষণ

ধামরাইতে ভূঁয়া জন্মদিন পালনের নামে এক নারী শ্রমিককে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ওষুধ কোম্পানির দুই শ্রমিকের বিরুদ্ধে। এদিকে, লালমনিরহাটে স্কুলছাত্রী গণধর্ষণের মূল আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার বিশ্ব ভালোবাসা দিবসের প্রথম প্রহরে ধামরাইয়ের একটি ওষুধ কোম্পানিতে কর্মরত শ্রমিক জসীম উদ্দিন ছেলের ভুয়া জন্মদিন উপলক্ষে সহকর্মী রহিম মিয়া ও এক নারী শ্রমিককে দাওয়াত দেয়। রাত সাড়ে ন’টার দিকে রহিম মিয়া ও ওই নারী শ্রমিক উপহার নিয়ে সহকর্মী জসিমের বাড়িতে যায়। জসীম তাদের একটি নির্জন ঘরে বসার ব্যবস্থা করে। এ সময় ভুয়া জন্মদিন বুঝতে পেরে ওই নারী শ্রমিক ঘর থেকে বেরিয়ে যাবার চেষ্টা করলে জসিমের সহায়তায় রহিম মিয়া তাকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়।

ঘটনার পর ধর্ষিত নারী ধামরাই থানায় জসীম ও রহিমের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এদিকে, লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় স্কুলছাত্রী গণধর্ষণের মূল আসামি জাহেদুলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। হাতীবান্ধা থানার ওসি ওমর ফারুক জানান, জাহিদুলকে আজ সকালে লালমনিরহাট জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত আয়নালকে গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে। বুধবার সন্ধ্যার পর উপজেলার দোয়ানী এলাকায় প্রতিবেশি জাহেদুল এবং তার খালাতো ভাই আয়নাল ধর্ষণ করে ষষ্ঠ শ্রেণির ঐ ছাত্রীকে। পরে মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয়রা প্রথমে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

You may also like

সুবর্ণচরে ধর্ষণের মামলায় আসামি রুহুল আমিনের জামিন প্রত্যাহার

কথামত ভোট না দেয়ায় নোয়াখালীর সুবর্ণচরে স্বামী-সন্তানকে বেঁধে