জামাতার ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন শাশুড়ি

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় জামাতার ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন শাশুড়ি। গুরুতর জখম হয়েছে আরও তিনজন। শুক্রবার রাতে উপজেলার শহরের মাদ্রাসা পাড়ায় হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ জানায়, নিহত শেফালী অধিকারী একই পাড়ার সদানন্দ অধিকারীর স্ত্রী। ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছে অভিযুক্ত অসীম কুমার অধিকারী। গুরুতর জখম স্ত্রী, শ্যালক ও শ্বশুরকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে দু’জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। সদানন্দ অধিকারী ও শেফালী অধিকারী দম্পতির মেয়ে ফাল্গুনী অধিকারীর ৯ বছর আগে সি আই ডি কনস্টেবল অসীম কুমার অধিকারীর সাথে বিয়ে হয়।

তারা শ্বশুরবাড়ির কাছাকাছি ভাড়া বাড়িতে থাকতেন। পরকিয়ার সন্দেহে শুক্রবার রাতে স্ত্রীর ওপর নির্যাতন চালালে সে বাবার বাড়ি চলে যায়। পরে রাত দেড়টায় শ্বশুর বাড়ি গিয়ে স্ত্রীর ওপর হামলা চালায় অসীম। শ্বশুর সদানন্দ, শ্বাশুড়ি শেফালী অধিকারী ও শ্যালক আনন্দ অধিকারী ছুটে গেলে তাদেরকেও ছুরিকাঘাত করে। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান শ্বাশুড়ি শেফালী অধিকারী। অভিযুক্ত অসীমকে আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

You may also like

বৃষ্টির বাধা পেরিয়ে শুরু হয়েছে ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেট যুদ্ধ

বৃষ্টির বাধা পেরিয়ে আবারো শুরু হয়েছে ভারত- পাকিস্তান