ধর্ষণে বাধা দেওয়ায় মামা খুন, গণপিটুনিতে নিহত ঘাতক

চুয়াডাঙ্গার আমিরপুরে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টায় বাঁধ দিতে গিয়ে মামা হাসান আলী নিহত হয়েছে। পরে গণপিটুনিতে বখাট আকবর হোসেনের মৃত্যু হয়। এছাড়া, চুয়াডাঙ্গার আরো দুই স্থান থেকে দু’জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। ভোরে চুয়াডাঙ্গার আমিরপুর রেলগেট পাড়ার একটি বাড়িতে ঢুকে বখাটে আকবর হোসেন স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। ওই ছাত্রীর চিৎকারে তার নানা ও মামা ছুটে এসে আকবরকে ঝাপটে ধরেন। এসময় হাতে থাকা ধারালো অস্ত্র দিয়ে আকবর, তাদেরকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। পরে হট্টগোলে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে বখাটে আকবরকে ধরে ফেলে এবং গণপিটুনী দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের তিনজনকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক মামা হাসান আলীকে মৃত বলে জানায়। আর নানার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিকেলে পাঠানো হয়। এদিকে, চুয়াডাঙ্গার দর্শনায় পূর্ব শত্রুতার জেরে শুক্রবার সন্ধ্যায় যুবলীগ নেতা নঈম উদ্দীন পল্টুকে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। এসময় আহত মঞ্জুর আহমেদকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

You may also like

রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে দুই জেএসএস কর্মী খুন

রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির-এমএন