টঙ্গীতে গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা, স্বামী আটক

টঙ্গীতে এক গৃহবধুকে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। আটক করা হয়েছে স্বামী, ভাসুর ও জা’কে। টঙ্গীর শহীদ আহসানউল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতাল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতের বাবা নেত্রকোনার পূর্বধলার যুগীরগোপা এলাকার জালালউদ্দিন জানান, সাত মাস আগে তার কৃষি ডিপ্লোমা পড়ূয়া মেয়ে তানজিলা আক্তার মেরিনকে বিয়ে দেন টঙ্গীর চেরাগআলী এলাকার বাসিন্দা মিজানের সাথে। বিয়ের পর থেকে খুটিনাটি বিষয় নিয়ে স্বামী, জা, ভাসুর মেরিনকে মারধর করতো।

সোমবার রাতে জায়ের সাথে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে প্রচণ্ড মারধর এবং শ্বাসরোধে তাকে হত্যা করা হয়। ঘটনা হত্যা না আত্নহত্যা তা এখনো নিশ্চিৎ নয় পুলিশ। এদিকে, বাগেরহাটের ভৈরব নদী থেকে ২৫ বছর বয়সী অজ্ঞাত যুবকের মৃতদেহ উদ্দার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সকালে রাধাভল্লব গ্রামের মাঝিভিটা এলাকা সংলগ্ন ভৈরব নদীর চর থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয়।

You may also like

ওয়াশিংটনসহ ২৫টি শহরে কারফিউ

কারফিউ জারি আর ন্যাশনাল গার্ড সদস্যদের মোতায়নের পর