সাতক্ষীরা ও ঠাকুরগাঁওয়ের সাতজন খুন

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় একই পরিবারের চারজনকে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা। এদিকে, ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশৈংকলে একই পরিবারের তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এছাড়া, ঝিনাইদহ ও রাজশাহীতে আরো দুই লাশ উদ্ধার। ফেনীতে বালু মহালের আধিপত্য নিয়ে এক আওয়ামী লীগ কর্মী খুন হয়েছেন। আর নরসিংদীতে চাচা শ্বশুরের হাতে গৃহবধূ খুন হয়েছে।

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় হেলাতলা ইউনিয়নের খলসি গ্রামে ছয় বছরের শিশুসহ একই পরিবারের চারজনকে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার ভোররাতে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, হ্যাচারি মালিক শাহিনুর রহমান, তার স্ত্রী সাবিনা খাতুন, ছেলে সিয়াম হোসেন মাহি ও মেয়ে তাসনিম। একই পরিবারের চার হত্যাকান্ডের খবরে গোটা উপজেলায় শোকের ছায়া। পুলিশের প্রাথমিক ধারণা, এটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড।

এদিকে, ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশৈংকলের ভরনিয়া শিয়ালডাঙ্গী গ্রামে বাড়ীর পাশে ডোবা থেকে মা, ছেলে ও মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃত আরিফার ভাই অভিযোগ করেন, পারিবারিক কলহের জেরেই হত্যার পর ডোবায় তাদের ফেলে দেয়া হয়েছে। তবে আরিফার স্বামী আকবর আলী বলেন, টাকা নিয়ে তার বাবার সাথে বিবাধ হয়। এরপর টাকার সন্ধানে রাতে বাড়ি থেকে বের হলে এসে দেখেন তার স্ত্রী-সন্তান বাড়িতে নাই। পুলিশ ঘটনা তদন্তে কাজ করছে। অন্যদিকে, ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডুর ধানক্ষেত থেকে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দু’জনকে আটক করা হয়েছে। রাজশাহীর পুঠিয়ায় পুকুর থেকে সুজন নামের এক প্রতিবন্ধীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

 

You may also like

পদ্মা সেতুর ৫ হাজার একশ মিটার দৃশ্যমান

মুন্সিগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে পদ্মা সেতুর ৩৪ তম স্প্যান