নারীদের কৃষিতে সম্পৃক্ত করতে কুষ্টিয়ায় নেয়া হয়েছে ভিন্নধর্মী এক উদ্যোগ

দেশের গ্রামীণ নারীদের বেশীর ভাগ সময় কাটে ঘর-গৃহস্থালী নিয়ে। সেসব নারীদের কৃষিতে সম্পৃক্ত করতে কুষ্টিয়ায় নেয়া হয়েছে ভিন্নধর্মী এক উদ্যোগ। তৈরি করা হয়েছে মহিলা কৃষিপ্রযুক্তি ক্লাব। এরই মধ্যে সুফলও মিলেছে। প্রায় তিন হাজার নারী ক্লাবটির সদস্য হয়ে বাড়িতে গড়েছেন নিরাপদ ফল ও সবজি খামার। উৎপাদিত সবজি ও ফল বিক্রি করে হয়ে উঠছেন স্বাবলম্বী।

কৃষক খাদিজা খাতুন, ব্যস্ত বীজে জীবাণু সার মেশাতে। সহযোগিতা করছেন স্বামী নুর আলম। জানালেন, বীজে জীবাণু সার মেশালে, চাষের সময় জমিতে কোন ধরনের রাসায়নিক সার ব্যবহারের প্রয়োজন নেই। খাদিজাকে এসব শিখিয়েছে মহিলা কৃষিপ্রযুক্তি ক্লাব।

খাদিজার মতো প্রায় তিন হাজার নারী দেশের প্রথম মহিলা কৃষিপ্রযুক্তি ক্লাব থেকে হাতে-কলমে শিখছেন কৃষির আদ্যোপান্ত। বাড়ির আঙিনায় গড়ছেন কৃষি খামার।

কৃষিবিদরা বলছেন, এ পদ্ধতি সারা দেশে চালু হলে কৃষিতে নতুন মাত্রা যোগ হবে।

You may also like

‘কান’-এর রেড কার্পেটে রূপকথা তৈরি করলেন ঐশ্বর্যা

৭০তম কান চলচ্চিত্র উৎসবের রেড কার্পেটে ঐশ্বর্যাকে দেখে