বাংলাদেশে যত বাজেট

স্বাধীন হওয়ার পর এ পর্যন্ত দেশে বাজেট ঘোষণা হয়েছে ৪৭ বার। যার তিনটি দেয়া হয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে। এ পর্যন্ত মোট ১২ জন অর্থমন্ত্রী বা উপদেষ্টা বাজেট পেশ করেন। বাংলাদেশের প্রথম বাজেট উত্থাপিত হয় ১৯৭২ সালের ৩০ শে জুন। অর্থমন্ত্রী, স্বাধীনতা যুদ্ধের সময়ের প্রধানমন্ত্রী এম তাজউদ্দিন আহমেদ এটি উত্থাপন করেন।

তিনিই একমাত্র বাজেট পেশকারী যিনি ছিলেন পুরোপুরি রাজনীতিক। মোট তিনটি বাজেট দিয়েছেন তিনি। ( ৭২-৭৩, ৭৩-৭৪, ৭৪-৭৫) ।বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি বার বাজেট দিয়েছেন বিএনপির অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী এম সাইফুর রহমান। রাষ্ট্রপতি জিয়ার সময় ২ বার এবং বিএনপির দুই মেয়াদে ১০ বার, মোট ১২ বার বাজেট পেশ করেছেন তিনি।

এবার তাঁর রেকর্ড ছুঁতে যাচ্ছেন বর্তমান অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। সাইফুর রহমানের সমান বাজেট দিতে যাচ্ছেন এক সময়ের আমলা এবং পরবর্তীতে রাজনীতিতে আসা বর্তমান অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। তিনি এরশাদ সরকারের সময় ৮২-৮৩ ও ৮৩-৮৪ অর্থবছরে বাজেট দিয়েছিলেন। বর্তমান সরকারের সময় এবার ১০ম বারের মতো বাজেট দিয়ে মোট ১২ বার বাজেট দিতে যাচ্ছেন।

বাজেট পেশের ক্ষেত্রে তৃতীয় সর্বোচ্চ বাজেট দিয়েছেন আরেক সাবেক আমলা ও পরবর্তীতে রাজনীতিক, শাহ্ এ এম এস কিবরিয়া । ৯৬-৯৭ অর্থবছর থেকে ২০০১-০২ অর্থ বছর পর্যন্ত ৬ বার বাজেট পেশ করেন তিনি।

এরশাদের অর্থমন্ত্রী এম সাঈদুজ্জামান ৮৪-৮৫ থেকে ৮৭-৮৮ পযন্ত মোট চার বার বাজেট উত্থাপন করেন। সামরিক আইন প্রশাসক হিসেবে ৭৬-৭৭ অর্থ বছর থেকে ৭৮-৭৯ পযন্ত তিন বার বাজেট দেন মেজর জেনারেল জিয়াউর রহমান। দুই বার বাজেট দিয়েছেন অধ্যাপক ড. ওয়াহিদুল হক।

এরশাদ সরকারের হয়ে ৮৯-৯০ ও ৯০-৯১ অর্থবছরে। এক বার করে বাজেট দিয়েছেন ড. এ আর মল্লিক ৭৫-৭৬, ড. মির্জা নুরুল হুদা ৭৯-৮০ এবং মেজর জেনারেল এম এ মুনেম ৮৮-৮৯ অর্থবছরে।

তত্বাবধায়ক সরকারের সময়ে ১৯৯৫-৯৬ অর্থ বছরে মাত্র তিন মাসের জন্য অন্তবর্তী কালীন বাজেট দেন ড. ওয়াহিদউদ্দিন মাহমুদ। ড. মির্জা আজিজুল ইসলাম দুটো বাজেট দেন ২০০৭-০৮ ও ২০০৮-০৯ অর্থবছরে। ৪৫ অর্থ বছরে দেয়া ৪৬টি বাজেটের মধ্যে সংসদে পেশ করা হয়েছে ৩৬ টি বাজেট।

আর বাকি ১০টি বঙ্গভবন, প্রধান সামরিক আইন প্রশাসক সিএমএল এর কার্যালয় এবং রেডিও টিভিতে ঘোষণা করা হয়। স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম বাজেটের আকার ছিলো মাত্র ৭৫২ কোটি ৩৫ লাখ টাকা। আর চলতি ২০১৮-১৯ অর্থবছরে এর আকার দাঁড়াচ্ছে চার লাখ ৬৪ হাজার কোটি টাকার।

জিয়াউল হক সবুজ
সিনিয়র রিপোর্টার, বাংলাভিশন

You may also like

জামিন পেলেন আলোকচিত্রী শহিদুল

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলায় কারাবন্দী আলোকচিত্রী