বাংলাদেশের পাটের প্রতি ব্যাপক আগ্রহী আন্তর্জাতিক কোম্পানীগুলো

গাড়ি প্রস্তুতকারী আন্তর্জাতিক কোম্পানীগুলো বাংলাদেশের পাটের প্রতি ব্যাপকভাবে আগ্রহী হয়ে উঠেছে। গাড়ির ভেতরের অংশ পরিবেশ বান্ধবভাবে তৈরি করতে তারা ব্যবহার করছে পাট। ফ্রান্সের নেট আপ ফাইবার নামে গাড়ির ভেতরের অংশ প্রস্তুতকারী এক প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশের সাথে যৌথ উদ্যোগে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে। বাংলাদেশ জুট মিলস কর্পোরেশন বিজেএমসি এ আগ্রহকে স্বাগত জানাচ্ছে। গোল্ডেন ফাইবার বা সোনালী আঁশ নামে গৌরবান্বিত এক অধ্যায় ছিলো পাটের। বাংলাদেশে পাটের ভালো ফলন হওয়ায় ব্রিটিশ আমলে এ অঞ্চলে গড়ে ওঠে বড় বড় পাটকল। কিন্তু কালের বিবর্তনে পাটকলগুলো হয়ে ওঠে সরকারের গলার কাঁটা। পাট হয়ে ওঠে কৃষকের গলার ফাঁস। এরই ধারাবাহিকতায় ২০০২ সালের ৩০ জুন বন্ধ করে দেয়া হয় এশিয়ার বৃহত্তম পাটকল আদমজি। বাংলাদেশে হারিয়ে যায় পাটের গৌরব। এমনই যখন অবস্থা তখন উন্নত দেশগুলো আগ্রহী হয়ে উঠছে পাটের প্রতি। তার অন্যতম উদাহরন ফ্রান্স।  ফ্রান্সের নরম্যান্ডি শহরে নেট আপ ফাইবার নামে এই প্রতিষ্ঠানটি তৈরি করে গাড়ির ভেতরের বিভিন্ন অংশ। তার মধ্যে রয়েছে ড্যাশ বোর্ড, দরজার প্যানেল, সীট কভার, স্পেয়ার হুইল কভার, গাড়ীর সিলিং কাভারসহ অন্যান্য অংশ। আর এসবই তারা তৈরী করছে পাটের আঁশ দিয়ে।

পাটের আঁশ ছাড়াও ফ্লেক্স বা লিনেন, হেম্প এবং কেনাফ বা মেসতার মতো প্রাকৃতিক আঁশ দিয়েও গাড়ীর ইন্টেরিয়র অংশগুলো তারা তৈরী করে থাকেন। তবে এসব পন্যের তুলনায় পাট কিছুটা সস্তা কিন্তু শক্তিশালি প্রাকৃতিক আঁশ হওয়ায় এ কোম্পানীটি বাংলাদেশের পাটের প্রতি আগ্রহী। নেট আপ ফাইবারের প্রধান নির্বাহী আরো জানান, গাড়ীর ইন্টেরিয়র তৈরিতে আগে ফাইবার গ্লাস ব্যবহার হতো। কিন্তু ফাইবার গ্লাস রিসাইকেল করা যায় না। আর তা পরিবেশ বান্ধব না হওয়ায় ৯০ দশকের পর থেকে গ্রীন অলটারনেটিভ হিসেবে পাট ও ফ্লেক্সের মতো প্রাকৃতিক পণ্য ব্যবহার শুরু হয়। বাংলাদেশ জুট মিলস কর্পোরেশন, নেট আপ ফাইবারের মতো আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে স্বাগত জানাচ্ছে।বাংলাদেশী পাট রপ্তানীকারকদের এক হিসেবে দেখা গেছে, বিএমডব্লিউ, মার্সিডিজ-বেঞ্জসহ বিশ্বের নামী দামী গাড়ী প্রস্তুতকারি কোম্পানীগুলোর কাছে বর্তমানে বাংলাদেশ পাট রপ্তানী করছে। এই কোম্পানীগুলোর, পাটের মতো প্রাকৃতিক আঁশ বছরে প্রয়োজন হয় আশি হাজার থেকে এক লাখ টন। সেখানে বাংলাদেশ রপ্তানী করছে মাত্র দশ থেকে বারো হাজার টন পাট।

 

You may also like

জাতীয় পার্টিতে কোন বিভেদ নেই

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেছেন, দলের