বিদেশে উচ্চশিক্ষায়ও করোনার বাধা

বিদেশে উচ্চশিক্ষার সুযোগ পেয়েও মহামারি করোনার কারণে যেতে পারছে না হাজারো শিক্ষার্থী। গ্রীষ্মকালীন দূরে থাক শীতকালীন সেশনে পড়তে পারা নিয়ে দুশ্চিন্তায় আটকেপড়া শিক্ষার্থীরা। ভিসা জটিলতা ও সংশ্লিষ্ট দেশের নিষেধাজ্ঞায় সৃস্টি হয়েছে অনিশ্চয়তা। ইউরোপসহ অন্যান্য দেশ সহসাই বিধিনিষেধ তুলে না নিলে সেশনজটসহ শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হবার শঙ্কা করছে ফরেন অ্যাডমিশন অ্যান্ড ক্যারিয়ার ডেভেলপমেন্ট কনসালটেন্টস অ্যাসোসিয়েশন। সুন্দর ভবিষ্যৎ গড়ার আশায় বাংলাদেশ থেকে প্রতিবছর বিদেশে পড়তে যান গড়ে প্রায় ৬০ হাজার শিক্ষার্থী। যার বেশিরভাগের পছন্দ কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাজ্য, জাপানসহ পূর্ব ইউরোপের দেশ। টিউশন ফি কম ও ভিসা পাওয়া সহজ হওয়ায় চীন, মালয়েশিয়া, এমনকি ভারতেও পড়তে যান অনেকে। বিদেশের মাটিতে উচ্চ শিক্ষার আশায় এবারও প্রস্তুতি নেন হাজারো শিক্ষার্থী। কিন্তু করোনার ভয়াবহতায় আটকে যায় বিদেশি ক্যাম্পাসে পড়ার স্বপ্ন।

ছেলে-মেয়ের উজ্জ্বল ভবিষ্যত করোনার কালো মেঘে ঢাকতে দেখে উদ্বিগ্ন অভিভাবকরাও।  আগস্ট-সেপ্টেম্বরে সেমিষ্টার শুরু হলেও ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু হয় মার্চ এর আগেই। কিন্তু দূতাবাস বন্ধ থাকায় ভিসা প্রক্রিয়া শেষ করে শিক্ষার্থী পাঠানোর আশা দিতে পারছে না পরামর্শক প্রতিষ্ঠানগুলো। উচ্চশিক্ষার পরামর্শক প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন- ফ্যাকড-ক্যাবের সভাপতি জানিয়েছেন, করোনার প্রভাবে বিদেশে পড়তে যাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৮০ হাজার থেকে ২ হাজারে নেমেছে। যা দীর্ঘমেয়াদে জটিলতা তৈরি করবে বলে শঙ্কা তার। বিভিন্ন দেশের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দীর্ঘায়িত হলে পড়াশোনায় বিরতির পাশাপাশি খরচ বৃদ্ধির শঙ্কায় শিক্ষার্থীরা। জিয়াউল হক সবুজ, বাংলাভিশন, ঢাকা।

You may also like

হাওরে ট্রলার ডুবিতে দুই শিশুসহ ১৭ জনের প্রাণহানী

নেত্রকোনায় মদনের রাজালিকান্দা হাওরে ট্রলার ডুবে কমপক্ষে ১৭