ভোলায় পানিবন্দী ছয়শো পরিবার

ভোলার রিং বেড়ীবাঁধ ও চর ফ্যাশনের বাঁধ ভেঙ্গে পাঁচটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে পানিবন্দী হয়ে পড়েছে প্রায় ৬ শ’ পরিবার। জোয়ার ভাটার পানিতে পরিবারগুলো মানবেতর জীবনযাপন করছেন।  ১৪ জুলাই দুপুরে অমাবস্যার জোয়ারের প্রভাবে ভোলার ইলিশা, কাচিয়া ইউনিয়ন এবং তজুমদ্দিন উপজেলার চাঁদপুর ইউনিয়নের দালালকান্দি এলাকার রিং বেড়ীবাঁধ ভেঙ্গে যায়।

এরপর থেকে গত কয়েকদিনে জোয়ার আসলেই প্লাবিত হচ্ছে দালালকান্দি, চৌকিদারকান্দি ও মাওলানাকান্দি গ্রাম। ফলে পানিবন্দী হয়ে পড়ে ছ’শ পরিবার। বর্তমানে এসব পরিবারগুলো একদিকে পানি ও অন্যদিকে সাপের আতংকে দিশেহারা। এছাড়া চুলা পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় তাদের রান্নাবান্নাও বন্ধ।

অন্যদিকে প্লাবিত হয়েছে তজুমদ্দিনের শশীগঞ্জ বাজারের ধরনীর খাল লঞ্চঘাট। পাকা সড়ক ডুবে যাওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছে ঢাকাগামীসহ বিভিন্ন রুটের যাত্রীরা। অপর দিকে ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার মুজিবনগর ইউনিয়নের চর মোতাহার পয়েন্টে বিধ্বস্ত ১ কিলোমিটার বেড়ি বাঁধ সংস্কার না করায় লোকালয়ে প্রবেশ করেছে জোয়ারের পানি।

এতে পানিবন্দী হয়ে পড়েছে দু থেকে তিনশ’ পরিবার। দ্রুত বাধগুলো সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাবাসী।

 

You may also like

ভোলারয় প্রতিবন্ধী মেয়ে ও মাকে পিটিয়ে গুরুতর জখম

ভোলার পশ্চিম ইলিশায় প্রতিবন্ধী মেয়ে ও মাকে পিটিয়ে