রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে

রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে। সকাল আটটায় শুরু হওয়া ভোট চলবে বিকেল চারটা পর্যন্ত। তিন শহরের আট লাখ ৮২ হাজার ৩৬ জন ভোটারের ভোট দেবার কথা। যদিও এর মধ্যে দু-একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটেছে। তিন সিটিতে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ভোটের পরিবেশ নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করলেও বিএনপির মেয়র প্রার্থীরা অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন।

সকাল আটটা থেকে ভোট গ্রহন শুরু হয় সিলেট, বরিশাল ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনে। বেলা বাড়ার সাথে সাথে বাড়তে থাকে ভোটারের উপস্থিতি। মেয়র প্রার্থী হিসেবে রাজশাহীতে লড়ছেন পাঁচজন, বরিশালে ছয়জন এবং সিলেটে ছয়জন। সকাল সোয়া আটটায় রাজশাহী স্যাটেলাইট টাউন হাইস্কুল কেন্দ্রে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন ভোট দেন। জয়ের ব্যাপারে প্রায় শতভাগ আশাবাদী তিনি।

সিলেটে আওয়ামী লীগ বদরউদ্দিন আহমেদ কামরান ও বিএনপির মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী এরই মধ্যে ভোট দিয়েছেন। ভোট দিয়ে তারা প্রত্যেকেই বিজয়ের আশা প্রকাশ করেন। তবে আরিফুল হক চৌধুরী এসময় কয়েকটি কেন্দ্রে অনিয়মের অভিযোগ তোলেন।

বরিশালে বিএনপির মেয়র প্রার্থী মজিবর রহমান সরওয়ার সৈয়দা মুজিদুন্নিসা স্কুলে ভোট দেন এবং বরিশাল কলেজে ভোট দিয়েছেন বরিশালে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহও। বরিশাল ১ নাম্বার ওয়ার্ডে সৈয়দা মুজিদুন্নেসা স্কুল কেন্দ্রে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ঘটেছে। পরে আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

You may also like

কুড়িগ্রামে দুই শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার

কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার বিসিক শিল্প নগরীর এলাকা থেকে