‘তিতলি’র আঘাতে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপে নতুন করে ভয়াবহ ভাঙন শুরু

ঘূর্ণিঝড় তিতলির প্রভাবে অবিরাম বৃষ্টি ও উত্তাল সাগরের ঢেউয়ের আঘাতে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপে নতুন করে ভয়াবহ ভাঙন শুরু হয়েছে। এতে শতাধিক ঘর-বাড়ি বিলীন এবং বিধ্বস্ত হয়ে গেছে চলাচলের রাস্তা। ঘূর্ণিঝড় তিতলির প্রভাবে সাগরের পানির উচ্চতা বেড়ে যাওয়ায় এ ভাঙন দেখা দেয়।

নতুন করে ভাঙনের ঘটনায় এলাকাবাসীর মধ্যে দেখা দিয়েছে আতঙ্ক। উপজেলা প্রশাসন বলছে, দ্বীপের বেড়িবাঁধটি সমপূর্ণ না হওয়ায় চলতি বর্ষা মৌসুমে শাহপরীর দ্বীপ এলাকা পানিবন্দি হয়ে পড়ে। যার কারণে মাটিগুলো নরম ছিল। অরক্ষিত অংশ দিয়ে গেল দুইদিন ধরে ঢেউয়ের আঘাতে শাহপরীর দ্বীপ মাঝেরপাড়া, জাইল্যাগোদা ও দক্ষিণপাড়ার শতাধিক ঘরবাড়ি পানিবন্দি হয়ে পড়ে।

এদিকে, ঘর হারা অসহায় মানুষগুলো কোনও জায়গা না পেয়ে খোলা আকাশের নিচে বৃষ্টিতে ভিজে দিন কাটচ্ছে। দুপুরে উখিয়া-টেকনাফ আসনের সংসদ সদস্য, উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসন শাহপরীর দ্বীপের ভাঙনকবলিত এলাকা ঘুরে দেখেন।

You may also like

জরুরি অবস্থা জারি করেছেন ট্রাম্প!

মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল তোলার বরাদ্দ আদায়ে শেষমেষ জরুরি