খাগড়াছড়িতে তামাক চাষে খাদ্য নিরাপত্তা ও পরিবেশ হুমকির মুখে

খাগড়াছড়িতে বিস্তির্ণ ফসলি জমিতে চাষ হচ্ছে বিষাক্ত তামাক। বাদ যাচ্ছে না শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও জনবসতি এলাকাও। চাষিদের উদ্বুদ্ধ করছে তামাক কোম্পানিগুলো। হুমকির মুখে পড়েছে খাদ্য নিরাপত্তা ও পরিবেশ।

তামাক কোম্পানিগুলোর ইন্ধনে প্রশাসনের নাকের ডগায় খাগড়াছড়ির বিস্তীর্ণ ফসলি জমি দখল করে নিচ্ছে বিষাক্ত তামাক। মাইনী, ফেনী, চেঙ্গী, ধলিয়া, মানিকছড়ি ও ধরুং খালের যে দিকে চোখ যায় শুধু তামাক আর তামাক। বাদ যাচ্ছে না শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও জন বসতিপূর্ণ এলাকাও।

বছরের পর বছর ধরে অন্য সব ফসলে লোকসান গুনে কৃষকরা এখন ঝুঁকেছেন তামাক চাষে। কৃষি বিভাগের পরিসংখ্যানের চেয়ে চলতি বছর খাগড়াছড়িতে আরো বেশি জমিতে ক্ষতিকর তামাক চাষ হয়েছে। প্রশাসনের সমন্বিত প্রচেষ্টা ছাড়া তামাক চাষ বন্ধ করা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছে কৃষি বিভাগ।

তামাক চাষ বৃদ্ধি পাওয়ায় বেড়েছে চুল্লিও। এতে ব্যাপক হারে পোড়ানো হচ্ছে কাঠ। তামাক চাষকে নিরুৎসাহিত করার কথা বলা হলেও বে-আইনী নয় বলে জানালেন জেলা প্রশাসক। তামাক চাষ কমছে বলে কৃষি বিভাগ দাবি করলেও স্থানীয়রা বলছেন, বাস্তবে গত বছরের চেয়ে জেলায় এবার তামাক চাষ বেড়েছে।

 

You may also like

সড়ক দুর্ঘটনায় দুই স্কুলশিক্ষার্থীসহ নিহত ৮

সড়ক দুর্ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, সিরাজগঞ্জ, নাটোর, খুলনা ও