তরল অক্সিজেন তৈরি হচ্ছে টাঙ্গাইলের একটি প্রতিষ্ঠানে

বিশ্বের সাথে সমান হারে দেশেও বাড়ছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা। আর আক্রান্তদের অন্যান্য চিকিৎসা উপকরণের মধ্যে অন্যতম মেডিক্যাল অক্সিজেন বা তরল অক্সিজেন। যার সিংহভাগ যোগান দিচ্ছে টাঙ্গাইলের বিআইজিএল নামের একটি প্রতিষ্ঠান। দেশের অধিকাংশ শিল্প প্রতিষ্ঠান যখন বন্ধ রয়েছে ঠিক তখনই করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের জরুরি চিকিৎসায় মেডিকেল অক্সিজেন উৎপাদনের জন্য চালু রয়েছে মেসার্স বাংলাদেশ ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্যাসেস লিমিটেড-বিআইজিএল। গত ১৮ মার্চ ঔষধ প্রশাসনের নির্দেশনায় অক্সিজেন উৎপাদন করে যাচ্ছে টাঙ্গাইলে বিসিক শিল্প নগরীর এই প্রতিষ্ঠানটি। আর উৎপাদিত অক্সিজেন চলে যাচ্ছে দেশের নানা প্রান্তে করোনায় আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা সেবায়।

শ্রমিকরা আগে আট ঘন্টা করলেও, এখন প্রায় দ্বিগুণ সময় কাজ করছেন। তবে নেই কোন অভিযোগ। রোগীরা সুস্থ্ হলেই নিজেদের শ্রমকে স্বার্থক মনে করবেন বলে জানিয়েছেন তারা। বর্তমানে দৈনিক ৭৫০ ঘনমিটার অক্সিজেন উৎপাদিত হলে দুই হাজার ঘনমিটার পর্যন্ত উৎপাদনের সক্ষমতা আছে প্রতিষ্ঠানটির , জানিয়েছেন এই কর্মকর্তা। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে উৎপাদন প্রক্রিয়া সচল রাখতে সব ধরণের সুযোগ-সুবিধা দেয়া হচ্ছে, জানান তিনি। দেশের চারটি অক্সিজেন গ্যাস উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের মধ্যে অন্যতম টাঙ্গাইলের এ প্রতিষ্ঠানটি ২০০০ সাল থেকে মেডিকেল অক্সিজেন উৎপাদন করছেন। যার বার্ষিক উৎপাদন ক্ষমতা এক কোটি ৪০ লাখ ঘনমিটার।

 

You may also like

২৭ সেপ্টেম্বর, রবিবার ২০২০

সকাল ৮:৩০ : অনুষ্ঠান ‘দিন প্রতিদিন’। বেলা ১১:০২