জাতিসংঘের প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান মিয়ানমারের

জাতিসংঘের তদন্ত প্রতিবেদনে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দিয়েছে মিয়ানমার; নাকচ করেছে মনবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ।এদিকে, মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের ব্যবস্থায় আপত্তি নেই; জানিয়েছে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়। মিয়ানমারের সরকারি মুখপাত্র ঝাও থাই জানান, জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উত্থাপিত ভূয়া অভিযোগের জেরে সরকারিভাবে তদন্ত কমিশন গঠিত হয়েছে।

মানবাধিকার কাউন্সিল আরোপিত কোন নিষেধাজ্ঞা মানা হবে না বলেও আগাম বার্তা দেয়া হয়েছে। এছাড়া, মানবাধিকার লঙ্ঘনের যে অভিযোগ তোলা হয়েছে তার পক্ষে শক্ত তথ্য, প্রমাণ ও তারিখ সরবরাহের দাবি তুলেছেন ঝাও থাই। এই ঘটনা প্রবাহের ধারাবাহিকতায় মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের ব্যবস্থা গ্রহণে বাধা না দেয়ার আশ্বাস দিয়েছে চীন।

রোহিঙ্গা ইস্যুকে জটিল উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সংকট সমাধানে মিয়ানমার, বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের চেষ্টায় ইতিবাচক অগ্রগতি হচ্ছে। নির্যাতনে অভিযুক্ত মিয়ানামার সেনা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধ তদন্তের তাগিদ দিয়ে সোমবার বহু প্রতিক্ষিত প্রতিবেদন প্রকাশ করে জাতিসংঘ। সেইসাথে, অং সান সুচির তীব্র সমালোচনা করা হয় প্রতিবেদনে।

You may also like

সরকারের ইন্ধনেই নয়াপল্টনে সংঘর্ষ : মির্জা ফখরুল

এদিকে, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ