বাংলাদেশের রিজার্ভ ‍চুরির দায়ে ফিলিপিন্স ব্যাংক কর্মকর্তার কারাদণ্ড

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির চাঞ্চল্যকর ঘটনার মূল হোতা মায়া দেগুইতোকে অভিযুক্ত করেছে ফিলিপিন্সের আদালত। এতে, ৩২ থেকে সর্বোচ্চ ছাপ্পান্ন বছরের কারাদণ্ড হতে পারে তাঁর। ফিলিপিন্সের রাজধানী ম্যানিলাভিত্তিক রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকিং কর্পোরেশন-আরসিবিসির সাবেক ম্যানেজার মায়া দেগুইতোকে দুর্নীতি ও অপকর্মের আটটি অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করেছে আদালত।

প্রতি অভিযোগে চার থেকে সাত বছরের কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে। পাশাপাশি, তাকে ১০ কোটি নব্বই লাখ ডলার জরিমানা করে ম্যানিলার আদালত। প্রতিক্রিয়ায় নিজেকে নির্দোষ দাবি করে দেগুইতো বলেছেন এই অপকর্ম তার অজান্ত ঘটেছে।

২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে গোপনীয় সুইফট কোড ব্যাবহার করে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভে থাকা বাংলাদেশে ব্যাংকের আট কোটি ১০ লাখ ডলার ফিলিপিন্সের আরসিবিসি ব্যাংকের ম্যানিলা শাখায় স্থানান্তর হয়। পরে যা ক্যাসিনোতে বিনিয়োগ করা হয়। এই অপকর্মের সময় আরসিবিসি ম্যানিলা শাখার ম্যানেজার ছিলেন মায়া দেগুইতো। বিশ্বের সর্ববৃহৎ ব্যাংক জালিয়াতির এই ঘটনায় ওই বছরই আরসিবিসিকে প্রায় দুই কোটি ডলার জরিমানা করে ফিলিপিন্সের কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

You may also like

বাবা-মার পাশে কবি আল মাহমুদের দাফন

ব্রাক্ষণবাড়িয়া শহরের মৌড়াইলে পারিবারিক কবরস্থানে মা-বাবার কবরের পাশে