রোহিঙ্গাদের নিরাপদ, টেকসই ও স্থায়ী প্রত্যাবাসন চায় ভারত

রোহিঙ্গাদের নিরাপদ, টেকসই ও স্থায়ী প্রত্যাবাসন চায় ভারত। এটা মিয়ানমার, বাংলাদেশ ও ভারত – এই তিন দেশের স্বার্থের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ, বলেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে বৈঠকের পর যৌথ ব্রিফিংয়ে তিনি একথা বলেন। জয়শঙ্কর জানান, ৫৪ টি অভিন্ন নদীর পানি বন্টন ইস্যুর সঠিক সমাধান খুঁজছে দুই দেশ। ঢাকা সফরের দ্বিতীয় দিনে সকালে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে যান ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন তিনি। বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শনের পর স্বাক্ষর করেন স্মারক বইয়ে।

পরে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনের সাথে বৈঠকে বসেন জয়শঙ্কর। প্রায় এক ঘণ্টার বৈঠকে দু’ দেশের নিরাপত্তা, কানেক্টিভিটি, বিদ্যুৎ, বাণিজ্য, পানি সম্পদসহ নানা বিষয়ে আলোচনা হয়।  পরে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে উভয় মন্ত্রীই জানান হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশে নানা ইস্যুতে ফলপ্রসু আলোচনা হয়েছে। দু’দেশের সম্পর্ককে আরো সমুন্নত করতে নানা পদক্ষেপের কথা বলেন তারা। রোহিঙ্গা শব্দটি ব্যবহার না করলেও জয়শঙ্কর বলেন, এ ইস্যুর স্থায়ী সমাধান জরুরি। আসামে চলমান নাগরিকপঞ্জি বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে এটাকে ভারতের অভ্যন্তরীণ ইস্যু বলে মন্তব্য করেন জয়শঙ্কর। কাশ্মীর ইস্যুতে করা প্রশ্নের জবাব দেন নি।

 

You may also like

১৮ সেপ্টেম্বর, বুধবার ২০১৯

বেলা ১২:০৫ : বাংলা সিনেমা বিকেল ৫:২০ :