নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে উত্তাল ভারত

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে ভারতের বিভিন্ন রাজ্য বিক্ষোভে ফুঁসে উঠেছে। পশ্চিমবঙ্গে ফাঁকা ট্রেনে আগুন দেয়াসহ অব্যাহত রয়েছে রাস্তা-ঘাট অবরোধ। এদিকে, পশ্চিমবঙ্গে সহিংসতার জন্য বাংলাদেশি মুসলিম অনুপ্রবেশকারীদের দুষছে ক্ষমতাসীন বিজেপি। হুঁমকি দেয়া হয়েছে রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসনের। বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে কয়েকদিন ধরেই উত্তাল ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চল। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হুঁশিয়ারির সত্ত্বেও পশ্চিমবঙ্গ সহিংসতা অব্যাহত রয়েছে। ভাংচুর চালানো হয়েছে ছয়টি রেলস্টেশনে। মুর্শিদাবাদ জেলার লালগোলা স্টেশনে ছয়টি ফাঁকা ট্রেনে আগুন দেয়া হয়েছে।

আসামেও থেকে বিক্ষোভ করছে আন্দোলনকারীরা। রাজ্যে এখনো ইন্টারনেট বন্ধ রয়েছে। বিক্ষোভে উস্কানি দেয়ার অভিযোগে আটক করা হয়েছে ৮৫ জনকে। বিক্ষোভ হয়েছে উত্তরপ্রদেশ ও নয়াদিল্লিতে। এদিকে, পশ্চিমবঙ্গে সহিংসতার জন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতার সমালোচনা করেছে বিজেপির ন্যাশনাল সেক্রেটারি রাহুল সিনহা। রাজ্যে সহিংসতার জন্য বাংলাদেশি মুসলিম অনুপ্রবেশকারীদের দায়ী করেছেন তিনি। আর এর পেছনে মমতার ইন্ধন রয়েছে বলে অভিযোগ তাঁর। হুঁশিয়ারি দেন, নৈরাজ্য চলতে থাকলে রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন জারির আবেদন করবে বিজেপি।

You may also like

স্ট্যামফোর্ডের শিক্ষার্থী সিফাতের জামিন

পুলিশের মামলায় জামিন পেয়েছেন স্ট্যামফোর্ডের শিক্ষার্থী সাহেদুল ইসলাম