ইউরোপ থেকে বিদায় নিলো ব্রিটেন

৪৭ বছরের পুরোনো সম্পর্ক ছিন্ন করে ইউরোপীয় জোট-ইইউ থেকে বিদায় নিলো ব্রিটেন। অবসান হলো ব্রেক্সিট ইস্যুতে গেল সাড়ে তিনবছরের রাজনৈতিক অস্থিরতা। বাংলাদেশ সময় শনিবার ভোর পাচটায় বহুল আলোচিত এই ব্রেক্সিট কার্যকর হলেও আগামী ১১ মাস অন্তর্বর্তীকালীন সময়ে ইউরোপের অন্যন্য দেশের সাথে স্বাভাবিক ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাবে ব্রিটেন। এরপর নতুন অভিবাসী নীতিমালা কার্যকর করবে ব্রিটেন। তবে যারা এখন পর্যন্ত সেখানে অবস্থান করছেন তাঁদের কোনো অসুবিধা হবে না বলে আশ্বস্ত করা হয়েছে।

ব্রেক্সিট কার্যকরের ঘটনাকে স্বাগত জানিয়ে আইরিশ প্রধানমন্ত্রী লিও ভারাদকার বলেছেন, এতে ব্রিটেন ও ইইউ উভয়েই লাভবান হয়েছে। ব্রেক্সিট সমর্থরা ৩১ জানুয়ারিকে বিজয় দিবস উল্লেখ করলেও, একে শোক দিবস উল্লেখ করে তীব্র নিন্দা জানিয়েছে বিরোধীরা। ২০১৬ সালে গণভোটে ব্রিটেনের ৫২ শতাংশ নাগরিক ইইউ থেকে বেড়িয়ে যাওয়ার পক্ষে ভোট দিলে রাজনৈতিক অস্থিরতার জেরে দুই দফায় প্রধানমন্ত্রীর পদ ছাড়তে বাধ্য হন ডেভিড ক্যামেরন ও থেরেসা মে।

You may also like

আজ বিশ্ব ফুসফুস দিবস

করোনার প্রভাবে মানুষের ফুসফুসের সংক্রমন বেড়েছে কয়েকগুন। করোনা