যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যু বাড়ছে

ছয় মাসের মধ্যে করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ দুই হাজারের মতো মানুষের প্রাণহানি হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। পরিস্থিতি নাজুক দিকে মোড় নেয়ায় আবার বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে নিউ ইয়র্কের সব স্কুল। বিশ্লেষকদের পূর্বাভাসের ধারাবাহিকতায় গত সপ্তাহ থেকে করোনা শনাক্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ার প্রবণতা ধরা পড়ে। বুধবার ২৪ ঘন্টায় প্রাণহানি হয় এক হাজার ৯শ’ ৫৬ জনের। টেক্সাসে সবচে’ বেশি দুইশ’ ৫ জনের মৃত্যু হয়। আর নিউ ইয়র্কে মারা যায় অন্তত ৪৭ জন। ওইদিন করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১ লাখ ৭৩ হাজার ছয়শ’র বেশি। দেশটিতে মোট মৃত্যু দুই লাখ ৫৬ হাজার দুইশ’র ওপরে।

এই পরিস্থিতিতে কানাডা ও মেক্সিকো সীমান্ত ২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এই নাজুক অবস্থার জেরে সংবাদ সম্মেলন করে নিউ ইয়র্কের সব পাবলিক স্কুল বন্ধের ঘোষণা দেন শহরের মেয়র বিল ডি ব্লাজিও। শহরে করোনা সংক্রমণের হার তিন শতাংশ বাড়ার তথ্য জানিয়ে টুইটও করেন। করোনার সেকেন্ড ওয়েভ মোকাবেলায় নগরবাসীকে প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বানও জানান তিনি। অনলাইনে শিক্ষাকার্যক্রম চালানোর বার্তা দিয়ে অভিভাবকদের চিঠি দিয়েছে নিউ ইয়র্কের স্কুল চ্যান্সেলর। জানানো হয়, পরিস্থিতি নিরাপদ হবার ভিত্তিতে শিগগিরই স্কুলগুলো খুলে দেয়া হবে।

You may also like

করোনায় আরো ৩১ জনের মৃত্যু

দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো ৩১ জনের