আন্তর্জাতিক বাধায় থামবে না রোহিঙ্গা স্থানান্তর প্রক্রিয়া: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

দাতা বা আন্তর্জাতিক সংস্থা যে বাগড়াই দিক, রোহিঙ্গাদের একটি অংশকে এবার ভাসানচরে নেয়া হবেই-সাফ জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডক্টর একে আব্দুল মোমেন। আর পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন জানিয়েছেন, ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের দেখভালের জন্য অনেক এনজিও এরইমধ্যে যোগাযোগ করেছে।

কক্সবাজারের ক্যাম্পগুলোতে প্রায় এগার লাখ রোহিঙ্গার গাদাগাদি ঘরবসতি। স্বল্প পরিসরে মানবেতর জীবনযাপন। তাছাড়া বর্ষা মৌসুমে পাহাড়ধ্বসে হতাহতের শঙ্কা। রয়েছে নিরাপত্তাসহ অন্যান্য সংকটও। এসব কারণে রোহিঙ্গাদের একটি অংশকে নোয়াখালীর ভাসানচরে সাময়িকভাবে স্থানান্তর করতে চায় সরকার। তবে, সরকারি সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন দেরি হচ্ছে দাতা ও আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর বাধায়। পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানালেন, এবার আর কারো বাধাই মানা হবে না। নৌবাহিনীর তত্ত্বাবধানে ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের থাকতে কোন অসুবিধা হবে না বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র সচিব। ভাসানচরে স্থানান্তর সাময়িক সমাধান হলেও রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ী সমাধানে তাদের নিজ দেশে ফিরে যেতে হবে বলে জানান মাসুদ বিন মোমেন। ইমরুল কায়েস, বাংলাভিশন, ঢাকা

You may also like

ইনজুরি কাটিয়ে অনুশীলনে মাশরাফি

ইনজুরি কাটিয়ে অনুশীলনে যোগ দিয়েছেন জাতীয় দলের সাবেক