নুসরাত হত্যায় চার পুলিশের গাফিলতির প্রমাণ মিলেছে

নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় ফেনীর দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের ভূমিকা নিয়ে পুলিশ সদর দপ্তরের তদন্তকাজ শেষ হয়েছে। তদন্তে সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনসহ অন্তত চার পুলিশ সদস্যের দায়িত্বে গাফিলতির প্রমাণ পেয়েছেন কমিটির সদস্যরা।

তদন্ত কমিটি ফেনীর পুলিশ সুপার এস এম জাহাঙ্গীর আলম সরকার, সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেমসহ সংশ্লিষ্ট ১০ পুলিশ কর্মকর্তা, মাদরাসা কমিটি, স্থানীয় সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের প্রতিনিধি মিলে অন্তত ৩৭ জনের বক্তব্য নিয়েছে। তদন্তে ওসিসহ অন্তত চার পুলিশ সদস্যের দায়িত্বে অবহেলার প্রমাণ পাওয়া গেছে।

তদন্ত কমিটির প্রধান এবং পুলিশ সদর দপ্তরের ডিআইজি এস এম রুহুল আমীন জানান তদন্ত প্রতিবেদন প্রায় চূড়ান্ত। আজকের মধ্যে আইজিপির কাছে জমা দেয়ার কথা রয়েছে। নুসরাত হত্যার ঘটনায় পুলিশসহ স্থানীয় প্রশাসনের গাফিলতি তদন্তে গত ১৬, ১৭ ও ১৮ এপ্রিল তদন্ত কমিটির প্রধান এবং পুলিশ সদর দপ্তরের ডিআইজি এস এম রুহুল আমীন ঘটনা তদন্তে ফেনী যান। এর আগে গত ১২ এপ্রিল মানবাধিকার কমিশনের একটি তদন্ত দল স্থানীয় প্রশাসন ও পুলিশকে দায়ী করে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে।

You may also like

বিএসটিআই অনুমোদিত ১১ কোম্পানির পাস্তুরিত দুধে সীসা

এবার ১১টি কোম্পানির পাস্তুরিত দুধে মানবস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক